• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

কুড়িগ্রামে ৫ ঘণ্টায় ১২৬ মিলিমিটার বৃষ্টি, ডুবে গেছে ফসল

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১১:২৪, ১৪ মে ২০২২

আপডেট: ১১:২৫, ১৪ মে ২০২২

ফন্ট সাইজ
কুড়িগ্রামে ৫ ঘণ্টায় ১২৬ মিলিমিটার বৃষ্টি, ডুবে গেছে ফসল

কুড়িগ্রামের বিভিন্ন উপজেলায় চলছে বোরো ধান কাটা ও মাড়াই। কৃষকরা তাদের সোনালী ফসল ঘরে তুলতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। এরই মধ্যে ভারি বৃষ্টিপাতের ফলে চরম বিপাকে পড়েছেন এখানকার বোরো চাষীরা। কেননা ৪-৫ ঘণ্টায় জেলায় ১২৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এতে করে জমিতে থাকা পাকা ধান, মাড়াই করা ধান ও খড় পানিতে তলিয়ে গেছে।

রাজারহাট আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, শনিবার (১৩ মে) কুড়িগ্রামে ৫ ঘণ্টায় ১২৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসেও বলা হয়েছে রংপুর বিভাগের বিভিন্ন স্থানে দমকা হাওয়াসহ ভারি বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। 

সরেজমিনে জেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, শনিবার ভোর থেকে সকাল পর্যন্ত ভারি বৃষ্টিপাতের কারণে শত শত বিঘা জমির পাকা বোরো ধান পানিতে তলিয়ে গেছে। কৃষকরা পানিতে তলিয়ে যাওয়া পাকা ধান কাটতে ব্যস্থ সময় পার করছেন। অনেকের আবার মাড়াই করা ধান এবং খড়ও পানিতে তলিয়ে গেছে। 

এদিকে আবার ভারী বর্ষণের ফলে কুড়িগ্রাম-যাত্রাপুর সড়কের শুলকুর বাজার এলাকার নির্মাধীন সেতুর বিকল্প রাস্তাটি পানিতে তলিয়ে গেছে। এতে করে চরম ভোগান্তিতে পরেছেন এই রাস্তায় যাতায়াতকারী শত শত মানুষ। 

সদরের পাঁচগাছী ইউনিয়নের কাঁচিচর এলাকার শহিদুল ইসলাম নামের এক কৃষক বলেন, আমি ২ বিঘা জমিতে বোরোর আবাদ করেছি। ফলনও খুবই ভালো হয়েছে এবং ধান পেকে গেছে। কিন্তু বৃষ্টিতে ১ বিঘার জমির পাকা ধান পানিতে তলিয়ে গেছে। কামলা নিয়ে ডুবে যাওয়া ধান কাটছি। না কাটলে তো পঁচে যাবে।

কুড়িগ্রামের রাজারহাট আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সবুর হোসেন জানান, শনিবার কুড়িগ্রামে ৪-৫ ঘণ্টার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ১২৬ মিলিমিটার। আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে রংপুর বিভাগের বিভিন্ন স্থানে দমকা হাওয়াসহ ভারি বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

বিভি/কেএস

মন্তব্য করুন: