• বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি ২০২২ | ৭ মাঘ ১৪২৮

BVNEWS24 || বিভিনিউজ২৪

বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল হবে বাণিজ্য সহায়ক

প্রকাশিত: ২০:৩০, ১৩ জানুয়ারি ২০২২

ফন্ট সাইজ
বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল হবে বাণিজ্য সহায়ক

হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে তৃতীয় টার্মিনাল যাত্রী ও কার্গো হ্যান্ডলিং সক্ষমতা উল্লেখযোগ্যভাবে বাড়াবে এবং বাংলাদেশের বাণিজ্য বাড়াতে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

নতুন টার্মিনালে বাৎসরিক যাত্রী পরিবহনের সক্ষমতা দ্বিগুণেরও বেশি হবে- বর্তমানের ৮ মিলিয়ন থেকে ২০ মিলিয়নেরও বেশি এবং কার্গো ধারণক্ষমতা দুই লাখ থেকে পাঁচ লাখ টন হবে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান-এর নেতৃত্বে বিজিএমইএ-এর একটি প্রতিনিধিদল নির্মাণাধীন তৃতীয় টার্মিনাল পরিদর্শনকালে প্রকল্প পরিচালক একেএম মাকসুদুল ইসলাম প্রতিনিধিদলকে নতুন টার্মিনালের বৈশিষ্ট্য ও সুযোগ-সুবিধা সম্পর্কে অবহিত করেন।

বিজিএমইএ প্রতিনিধিদলে অন্যান্যদের মধ্যে ছিলেন সহ-সভাপতি শহিদউল্লাহ আজিম, সহ-সভাপতি মিরান আলী, পরিচালক আসিফ আশরাফ এবং সাবেক পরিচালক আশিকুর রহমান (তুহিন)। বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।

তিনতলা বিশিষ্ট টার্মিনাল ভবনটি পাঁচ লাখ ৪২ হাজার বর্গমিটার এলাকা জুড়ে তৈরি হচ্ছে, যার ফ্লোর স্পেস রয়েছে দুই লাখ ৩০ হাজার বর্গমিটার, যেখানে ১১৫টি চেক-ইন কাউন্টার, ৬৪টি প্রস্থান এবং ৬৪টি আগমন ইমিগ্রেশন ডেস্ক রয়েছে।

আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন বিশ্বমানের টার্মিনালটি যাত্রীদের নির্বিঘ্নে চলাচল ও স্বাচ্ছন্দ্য নিশ্চিত করে একই ছাদের নিচে সকল সেবা প্রদান করবে।

আমদানি কার্গো কমপ্লেক্সটি ২৭ হাজার বর্গমিটার জুড়ে নির্মিত হচ্ছে, যার বাৎসরিক কার্গো হ্যান্ডলিং সক্ষমতা হবে দুই লাখ ৭৩ হাজার ৪৭০ টন। রফতানি কার্গো কমপ্লেক্স আয়তনে হবে ৩৬ হাজার বর্গমিটার, যার বাৎসরিক কার্গো হ্যান্ডলিং সক্ষমতা হবে পাঁচ লাখ ৪৬ হাজার ৯৪১ টন।

এছাড়াও পার্কিং স্পেসে একবারে এক হাজার ২৩০টি যানবাহন পার্কিং করতে পারবে। টার্মিনালে থাকবে ২৭টি হোল্ড ব্যাগেজ এক্সরে স্ক্রীনার মেশিন, ১১টি বডি স্ক্যানার, ২৫টি সেন্ট্রাল ডিপারচার সিকিউরিটি স্ক্রিনিং, ১২টি বোর্ডিং ব্রিজ এবং ১৬টি লাগেজ বেল্ট।

বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, বাংলাদেশে ব্যবসা বাণিজ্যে প্রসার ঘটছে। তাই আকাশপথে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য সম্পাদনের চাহিদাও বাড়ছে।

এমন একটি সময়োপযোগী উদ্যোগ নেওয়ার জন্য সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, উন্নত স্থাপত্য ও আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত টার্মিনাল-৩ শুধমাত্র বাণিজ্য বাড়াতেই সহায়তা করবে না, বরং আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের ভাবমূর্তিরও উন্নয়ন ঘটাবে।

বিভি/এইচএস/এসডি

মন্তব্য করুন: