• NEWS PORTAL

  • বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

বাড়িতে মায়ের মরদেহ রেখে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রে ২ ভাই

প্রকাশিত: ১৬:৩৮, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ফন্ট সাইজ
বাড়িতে মায়ের মরদেহ রেখে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্রে ২ ভাই

ফাইল ছবি

বুধবার দিবাগত রাতে না ফেরার দেশে চলে যান মা। মা মারা যাওয়ায় কান্নায় ভেঙে পড়ে দুই ভাই সাইফুল ইসলাম ও আসাদ মল্লিক। মায়ের কথা ভেবে ও স্বজনদের কথামতো পরীক্ষাকেন্দ্রে যেতে রাজি হয় দুই ভাই। 

সকালে চোখ মুছতে মুছতে পরীক্ষা কেন্দ্রে যায় সাইফুল ও আসাদ। মায়ের লাশ বাড়িতে রেখে ইংরেজি দ্বিতীয়পত্রের পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে এই দুই এসএসসি পরীক্ষার্থী।

সাইফুল ইসলাম ও আসাদ মল্লিক কাউখালী উপজেলার জোলাগাতি গ্রামের ব্যবসায়ী আবুল হোসেন মল্লিকের ছেলে। ভাণ্ডারিয়া উপজেলার উত্তর ভিটাবাড়ীয়া নূরজাহান মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয় পড়াশোনা করে এ দুই সহোদর।

গতকাল বুধবার দিবাগত রাতে তার মা শাহানা বেগম (৩৫) পিরোজপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। রাতে তার লাশ বাড়িতে নেয়া হয়। মায়ের মরদেহ বাড়িতে রেখে আজ ভাণ্ডারিয়া বন্দর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা দিয়েছে দুই সহোদর।

মায়ের মৃত্যুর খবর পেয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জহিরুল ইসলাম ওই কেন্দ্রে যান। তিনি সাইফুল ইসলাম ও আসাদ মল্লিক সান্ত্বনা দেন। কেন্দ্রের বাইরে তাদের স্বজনের সঙ্গেও তিনি কথা বলেন। পরীক্ষা শেষ হওয়ার ১০ মিনিট পূর্বে তারা বের হয়ে মায়ের জানাজার জন্য বাড়িতে যায় এবং দুপুর ২টায় জানাজার নামাজের পর মায়ের দাফন সম্পন্ন হয়।

কেন্দ্রসচিব ভাণ্ডারিয়া বন্দর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মাহমুদ চৌধুরী বলেন, এসএসসি পরীক্ষার্থী সাইফুল ইসলাম ও আসাদ মল্লিক মা হারানোর বিষয়টি খুবই মর্মান্তিক। তাদের কক্ষের পর্যবেক্ষকসহ আমি কেন্দ্রে তার খোঁজখবর রেখেছি। 

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জহিরুল আলম বলেন, বিষয়টি জানতে পেরে ওই কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়েছিলাম। ওই পরীক্ষার্থীদের সান্ত্বনা দিয়েছি। তাদের পরীক্ষা ভালো হয়েছে।

বিভি/টিটি

মন্তব্য করুন: