• NEWS PORTAL

  • বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

মেধাবী ও পিছিয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের ফলাফলে বিপরীতমুখী চিত্র

সৈকত সাদিক

প্রকাশিত: ১৫:৩৩, ৩০ নভেম্বর ২০২২

ফন্ট সাইজ
মেধাবী ও পিছিয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের ফলাফলে বিপরীতমুখী চিত্র

এবার এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় কমেছে পাসের হার। গত বছরের চেয়ে অনেকে বেড়েছে জিপিএ ৫। বেড়েছে ফেলের সংখ্যাও। মেধাবী ও পিছিয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের ফলাফলে বিপরীতমুখী চিত্র। করোনা ও বন্যা মোকাবিলার পর শিক্ষার্থীদের এই ফলাফলকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছে শিক্ষা সংশ্লিষ্টরা।

কোভিডের ধাক্কা ও বিভিন্ন অঞ্চলের বন্যার কারণে এবারে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নেয়া হয়েছিলো পরিবর্তিত ও কিছুটা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে। পরীক্ষায় অংশ নেয় ১৯ লাখ ৯৪ হাজার ১৩৭ জন শিক্ষার্থী।

নয়টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, মাদরাসা ও কারিগরি বোর্ড মিলিয়ে এবারে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১৭ লাখ ৪৩ হাজার ৬১৯ জন। গতবার পাশের হার ৯৩ দশমিক ৫৮ শতাংশ থাকলেও এবছর তা কমে ৮৭ দশমিক ৪৪ শতাংশ হয়েছে। মোট জিপিএ ফাইভ প্রাপ্তদের সংখ্যা- ২ লাখ ৬৯ হাজার ৬০২ জন। গতবার ছিলো ১ লাখ ৮৩ হাজার ৩৪০জন। 

বন্যার কারণে এবারে ফলাফলের ক্ষেত্রে সবচেয়ে পিছিয়ে সিলেট বোর্ড। এই বোর্ড পাশের হার ৭৮ দশমিক আট দুই শতাংশ। তারপরও সব মিলিয়ে এবারের ফলাফলকে ভালো বলে দাবি করেছেন ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার।

এবার সারাদেশে শতভাগ ফেল করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা গেলোবারের চেয়ে প্রায় তিনগুণ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫০টিতে। এ জন্য করোনা, বন্যা, পরীক্ষার বিষয় বেড়ে যাওয়াসহ নানা বিষয় উল্লেখ করেন তিনি।

পরীক্ষায় পাশের হার ও ফলাফলের সর্বোচ্চ সূচকেও এগিয়ে মেয়েরা। ছাত্রীদের পাশের হার ৮৭ দশমিক ৭১ আর ছাত্রদের  ৮৭ দশমিক ১৬ শতাংশ। মানবিকসহ সব বিভাগেই জিপিএ-ফাইভ প্রাপ্তিতেও ছাত্রদের পেছনে ফেলেছে ছাত্রীরা। 

শুরু হবে কলেজে ভর্তি পরীক্ষার প্রতিযোগিতা। ভালো কলেজে ভর্তি হতে না পারলে হয়তো দুশ্চিন্তায় শিক্ষার্থী, অভিভাবকরা। জিপিএ ৫ কিংবা ফলাফল নির্ভর এই শিক্ষা ব্যবস্থার খুব শিগগিরই পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়েছেন শিক্ষা সংশ্লিষ্টরা।
 

বিভি/রিসি

মন্তব্য করুন: