• NEWS PORTAL

  • বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

মালয়েশিয়ায় ২০০-এর বেশি বাংলাদেশি আটক

প্রকাশিত: ১৪:১২, ২০ জানুয়ারি ২০২৪

ফন্ট সাইজ
মালয়েশিয়ায় ২০০-এর বেশি বাংলাদেশি আটক

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসী বিরোধী অভিযানে ২০৫ বাংলাদেশিসহ ৫৬১ জনকে আটক করেছে দেশটির অভিবাসন বিভাগ। শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) মধ্যরাতে বেরানাং-এর তাসিক কেসুমা শহরে বাইদুরি এপার্টমেন্টে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

স্থানীয় নাগরিকদের অভিযোগে চালানো এ অভিযানে পুত্রজায়া, কুয়ালালামপুর, সেলাঙ্গড়, নেগারি সিম্বিলান, মালাকা ও পেরাকের ৫ শতাধিক অভিবাসন বিভাগের সদস্য অংশ নেয়। অভিবাসন বিভাগ ছাড়াও এ অভিযানে উপস্থিত ছিলো রয়্যাল পুলিশ, জেপিএন ও প্রতিরক্ষা বিভাগের সদস্য।

অভিযানের পর এক বিবৃতিতে অভিবাসন বিভাগের ডিজি দাতুক রুসলিন জুসো বলেন, এখানকার এপার্টমেন্টগুলোর ৮০ শতাংশই বিদেশি কর্মীদের দখলে যা স্থানীয়দের জন্য উদ্বেগজনক। বিদেশিরা এখানে ৬০০ থেকে ৮০০ রিঙ্গিতের এপার্টমেন্ট ভাড়া নিয়ে ৮ থেকে ১০ জন থাকছেন। স্থানীয়রা এই এলাকাকে ‘মিনি ঢাকা’ আখ্যা দিয়েছেন। মূলত স্থানীয়দের অভিযোগেই এ অভিযান পরিচালিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

অভিবাসন বিভাগ বলছে, ৭৫২ জন বিদেশি কর্মীর কাগজপত্র যাচাইবাছাই শেষে ৫৬১ জনকে আটক দেখানো হয়, যার মধ্যে ৮৭ জন নারী রয়েছেন। এদের মধ্যে ২০৫ জন বাংলাদেশি, বাকিরা মিয়ানমার, নেপাল, ইন্দোনেশিয়া, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, ভারত, কম্বোডিয়া, সিয়েরা লিয়ন ও ক্যামেরনের নাগরিক।

অভিযান চলাকালে বেশ কয়েকজন পালানোর চেষ্টা করে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

অভিবাসন বিভাগ ২২০ টি এমন এপার্টমেন্ট চিহ্নিত করেছেন, যেখানে অবৈধ অভিবাসীর সংখ্যা বেশি। অভিবাসন বিভাগের ডিজি বলছেন, বিদেশিরা যখন লম্বা সময় এক জায়গায় থাকছেন তখন তারা ধীরে ধীরে নিজেদের মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা শুরু করছেন, ওই এলাকাকে নিজেদের এলাকা হিসাবে পরিচিত করছেন যা আমরা সম্পূর্ণ নিরুৎসাহিত করছি।

আটকদের প্রাথমিকভাবে সিমিনি ক্যাম্পে নিয়ে যাওয়া হবে, সেখানে চূড়ান্ত যাচাই বাছাই শেষে তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানিয়েছে অভিবাসন বিভাগ।

অভিবাসন বিভাগের তথ্যমতে নতুন বছরের ১৮ দিনে দেশব্যাপী ৮৭০টি অভিযান পরিচালিত হয়েছে আর এতে প্রাথমিকভাবে যাচাই-বাছাই করা হয়েছে ৯ হাজার ১৬৯ জন অভিবাসীর কাগজপত্র। অভিবাসন আইন ভঙ্গে অভিযোগে চূড়ান্তভাবে আটক দেখানো হয়েছে ৪ হাজার ২৬ জনকে আর ৪২ জন মালিককেও শাস্তির আওতায় আনা হয়েছে।

বিভি/টিটি

মন্তব্য করুন: