• বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি ২০২২ | ৭ মাঘ ১৪২৮

BVNEWS24 || বিভিনিউজ২৪

মালয়েশিয়ায় অবৈধ বাংলাদেশি প্রবাসীদের জন্য সুখবর!

প্রকাশিত: ১৮:০৫, ২৩ ডিসেম্বর ২০২১

ফন্ট সাইজ
মালয়েশিয়ায় অবৈধ বাংলাদেশি প্রবাসীদের জন্য সুখবর!

মালয়েশিয়ায় অবৈধ বাংলাদেশিসহ বিদেশি শ্রমিকদের স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের সময়সীমা বাড়িয়েছে দেশটির সরকার। ২০২২ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত এই সুযোগ বাড়ানো হয়েছে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) দেশটির অভিবাসন বিভাগের ফেসবুক পেইজে এক বিবৃতিতে এতথ্য জানান ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক দাতুক খায়রুল যাইমি দাউদ।

মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের হাইকমিশনার মো. গোলাম সারোয়ার জানান, লকডাউন এবং বিভিন্ন জটিলতার কারণে অনেকেই এই রিক্যালিব্রেশন রিটার্নের আওতাভুক্ত হতে পারেননি। আমরা এই দেশের কর্তৃপক্ষের সংগে আলোচনা করে সময়সীমা বাড়ানোর সুপারিশ করি।

তিনি বলেন, আমাদের সুপারিশ আমলে নিয়ে ২০২২ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত ‘রিক্যালিব্রেশন রিটার্ন’ কর্মসূচির সময়সীমা বাড়িয়েছে মালয়েশীয় সরকার।

গত কয়েকমাস থেকে মালয়েশিয়ায় অনিবন্ধিত বিদেশিদের ধড়পাকড় বেড়ে যায়। এতে অন্তত তিন শতাধিক বাংলাদেশি আটকের খবর পাওয়া যায়।

তবে রাষ্ট্রদূত বলেন, এটি মালয়েশিয়া সরকারের একটি ধারাবাহিক প্রক্রিয়া। এর সংগে বৈধকরণের কোনো সর্ম্পক নেই। বিভিন্ন অপরাধে বাংলাদেশিসহ অন্যদেশিরাও আটক হন। এর মধ্যে নিবন্ধন না থাকাও একটি অপরাধ।
চলমান রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রামের মাধ্যমে তারা ইমিগ্রেশনের অনুমতি ছাড়াই নিজ দেশে ফিরতে পারবেন।
আর নিতে হবে না ইমিগ্রেশনের অ্যাপয়েন্টমেন্ট। অর্থাৎ অবৈধ অভিবাসীরা সরাসরি কুয়ালালামপুর ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্টে গিয়ে ৫০০ রিঙ্গিত জরিমানা প্রদান করে নিজ দেশে চলে যেতে পারবেন। এক্ষেত্রে পাসপোর্ট বা ট্রাভেল পাস এবং ফ্লাইট টিকিট সংগে নিয়ে যেতে হবে। অবশ্যই করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট ফ্লাইটের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে করতে হবে এবং ৬-৮ ঘণ্টা আগে বিমানবন্দরে যেতে হবে।

তবে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ জানায়, যারা রিক্যালিব্রেশন প্রোগ্রামে অংশ নিচ্ছেন না এবং যে কোম্পানির মালিক অবৈধ শ্রমিকদের দিয়ে কাজ করাচ্ছেন তাদের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়ার ১৯৫৯/৬৩ অনুচ্ছেদের ৫৫ (বি) ধারা মোতাবেক আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কোনো স্থানে যদি অবৈধ শ্রমিক পাওয়া যায় তাহলে মালিকপক্ষ ও কর্মচারীকে বড় অঙ্কের জরিমানাসহ এক বছরের জেল কার্যকর করা হবে। অন্য আরেকটি আইনে আছে, কোনো মালিকপক্ষ যদি পাঁচজনের বেশি অবৈধ শ্রমিক রাখে তাহলে পাঁচবছরের জেল কার্যকর হবে।

২০২০ সালের ডিসেম্বর থেকে ‘রিক্যালিব্রেশন রিটার্ন’ কর্মসূচিতে এখন পর্যন্ত এক লাখ ৯২ হাজার ২৮১ জন অবৈধ অভিবাসী নিজ দেশে স্বেচ্ছায় ফিরে যাওয়ার জন্য নিবন্ধিত হয়েছে। তারমধ্যে ৯৯ হাজার ৪৭ জন ইন্দোনেশিয়ান, ২৬ হাজার ৮২১ জন বাংলাদেশি, ২৩ হাজার ৮৪৪ জন ভারতীয়সহ মোট এক লাখ ৬২ হাজার ৮২৭ জন দেশে ফিরে গেছে।

বিভি/এএন

মন্তব্য করুন: