• NEWS PORTAL

  • বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২ | ১৬ আষাঢ় ১৪২৯

এতো দেশ চালানোর মতোই অবস্থা

প্রকাশিত: ১৯:০১, ২০ মে ২০২২

আপডেট: ১৯:০৩, ২০ মে ২০২২

ফন্ট সাইজ
এতো দেশ চালানোর মতোই অবস্থা

“বঙ্গবন্ধু” সিনেমার ট্রেইলার দেখলাম। এত বাজেটের সিনেমা, এত বড় বড় নিউজ, এত বড় পরিচালক তাহলে গ্রাফিক্স, এডিটিং, সেট, মিউজিক এতো দুর্বল কেন? গুরুত্বপূর্ণ ঐতিহাসিক ভাষনের মাইকের তারটা পর্যন্ত নাই। তাহলে টাকা খরচ হলো কোথায়? দুই দেশের বড় বুদ্ধিজীবিরা মিলে এমন জিনিস বানালো? 

এতো দেশ চালানোর মতোই অবস্থা। বিশাল বড় বাৎসরিক বাজেট হয়, বড় বড় ভবন, রাস্তা,ট্রাফিক সিস্টেমের টাকা খরচ হয়, সেসবের জন্য রাজস্ব আদায়ে করাকরি হয়, দুর্নীতির বিরুদ্ব্যে এত বড় বড় কথা হয়। ঐ সব প্রচারের জন্য আবার কয়েকশো কোটি টাকা খরচ করে কনসার্টও হয়। তবু দিন শেষে কয়েক লক্ষ কোটি টাকা দেশ থেকে পাচার হয় কেউ টের পায় না।

সবকিছুর মূলেই দেখবেন কিছু ঘাপটি মারা লোক থাকে। কখনো এরা উপদেষ্টা, কখনো ব্যবস্থাপক, কথনো মন্ত্রীর দালাল, কখনো সহকারী পরিচালক। এরা যেমন সরকার প্রধাণ এর কাছ থেকে প্রকল্পের বাজেট পাশ করায় তেমনি ঐ বাজেটের বড় অংশ মেরেও দেয়। এরা মাঠের মাঝখানে ব্রীজ বানায়, বাঁশ দিয়ে ছাদ ঢালাই দেয়, রাস্তার পচা বিটুমিন দেয়, বিদেশ থেকে আতশবাজী কিনে আনে, বিদেশ থেকে শিল্পী আনে, ঐসবের বাজেটের যদি ট্রেলার বানানো হতো সেখানেই এরক অসংগতি দেখতে পেতেন। ঠিক যেভাবে দেখতে পাচ্ছেন “বঙ্গবন্ধু”র ভাসনের মাইকে তার নেই। 

আমরা শুধু পরিচালক আর অভিনেতা অভিনেত্রীদের নাম জানতে পারছি, যারা পেছনের দরজা দিয়ে গ্রাফিক্স, এডিট, মিউজিক, সেট ও কেবলের টাকা সরিয়ে নিলো তাদের নাম দেখতে পাইনা। 

পাবলিকের টাকা আর আবেগ নিয়ে খেলার মত সহজ কাজ পৃথিবীতে আর নাই।

গীতিকার, সুরকার, গায়ক ও অভিনেতা প্রীতম আহমেদ-এর ফেসবুক থেকে নেওয়া।

বিভি/এইচকে

মন্তব্য করুন: