• NEWS PORTAL

  • রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪

Inhouse Drama Promotion
Inhouse Drama Promotion

হেড ইনজুরি প্রতিরোধে সচেতন জরুরি: ডা. জিল্লুর রহমান

প্রকাশিত: ২০:১৩, ৩০ মে ২০২৪

ফন্ট সাইজ
হেড ইনজুরি প্রতিরোধে সচেতন জরুরি: ডা. জিল্লুর রহমান

বাংলাদেশের প্রথম জেসিআই স্বীকৃত ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালে অনুষ্ঠিত হয়েছে হেডইনজুরি (মাথার আঘাত) সচেতনতা বিষয়ক একটি পেশেন্ট ফোরাম। অনুষ্ঠানে হেড ইনজুরি নিয়ে বিভিন্ন তথ্যবহুল আলোচনা ও মতবিনিময় করা হয়।  অনুষ্ঠানে বিভিন্ন স্বাস্থ্য জটিলতা নিয়ে কর্মরত চিকিৎসকরা নিজ নিজ দক্ষতাও অভিজ্ঞতা শেয়ার করেন। পেশেন্ট ফোরামে হেড ইনজুরির কারণ ও করণীয় এবং কীভাবে তা রোগীরজীবনে প্রভাব ফেলতে পারে এসব নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়, যেখানে সচেতনতা বৃদ্ধিরপরামর্শ দেন চিকিৎসকবৃন্দ। পেশেন্ট ফোরামটি বিশ্বমানের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে এভারকেয়ার হসপিটালের প্রচেষ্টার একটি অংশ।

পেশেন্ট ফোরামে উপস্থিত ছিলেন এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা’র নিউরো সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট ও কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ডা. মোঃ জিল্লুর রহমান; নিউরো সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালট্যান্ট প্রফেসর (কর্নেল) ডা. মুঃ আমিনুল ইসলাম; নিউরো সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. মোঃ আলিউজ্জামান জোয়ার্দার; এভারকেয়ার হসপিটালস, বাংলাদেশ-এর এমডি ও সিইও ডা. রত্নদীপ চাষ্কার এবং মেডিকেল সার্ভিসেস বিভাগের ডিরেক্টর ডা. আরিফ মাহমুদ প্রমুখ। 

এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা’র নিউরো সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট ও কো-অর্ডিনেটর প্রফেসর ডা. মোঃ জিল্লুর রহমান বলেন, “হেড ইনজুরি প্রতিরোধে সবাইকে প্রাথমিক পদক্ষেপ সম্পর্কে সচেতন করতে হবে। এর মাধ্যমে আঘাতের সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস করবে এবং প্রত্যেকের সুরক্ষা নিশ্চিত হবে বলে আমার বিশ্বাস।” 

নিউরোসার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট প্রফেসর (কর্নেল) ডা. মু. আমিনুল ইসলাম বলেন, “নিউরোসার্জিকাল সেবার গুণগতমান নিশ্চিত করা কেবল মাত্র দায়িত্ব ও কর্তব্য নয় বরং প্রতিশ্রুতিও। এভারকেয়ার হসপিটালঢাকায় আমরা নিউরোলজিক্যাল (স্নায়বিক) স্বাস্থ্যসেবাকে এগিয়ে নিতে এবং রোগীদের সর্বোচ্চমানের যত্ন এবং সেবা প্রদান করতে সবর্দা সচেষ্ট।”

নিউরোসার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. মোঃ আলিউজ্জামান জোয়ার্দার বলেন, “হেড ইনজুরি একটি সেনসিটিভ বিষয় তাই তাৎক্ষণিক চিকিৎসার প্রয়োজন। তাই ডাক্তার এবং জনসাধারণকে এর প্রতিরোধে এক সাথে কাজ করতে হবে। সম্মিলিত প্রচেষ্টা এবং সচেতনতা বৃদ্ধির মাধ্যমে রোগীদের জন্য আরো নিরাপদ পরিবেশ গড়ে তোলা সম্ভব।” 

এভারকেয়ার হসপিটালস, বাংলাদেশ-এরমেডিকেল সার্ভিসেস-এর ডিরেক্টর ডা. আরিফ মাহমুদ স্বাস্থ্যসেবার মান উন্নয়নেএভারকেয়ার হাসপিটালের নিষ্ঠার কথা পুনর্ব্যক্ত করে বলেন, “আপনারা জানেন, এই ধরণের আঘাতখেলাধুলা, দুর্ঘটনা ইত্যাদি কারণে হয়ে থাকে, যা ব্যক্তির শারীরিক এবং মানসিক সুস্থতারউপর দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব ফেলতে পারে। একটি নিরাপদ ও স্বাস্থ্যকর সমাজ গড়ে তোলার প্রত্যয়েআজকের এই ফোরামটি আয়োজন করেছি এবং সচেতনতা বৃদ্ধির মাধ্যমে আমরা আমাদের লক্ষ্যে পৌছাতেপারব বলে আমি আশাবাদী।” 

এভারকেয়ার হসপিটালঢাকা সম্পর্কে- দেশের প্রথম হাসপাতাল হিসেবে টানা ৬ বার জয়েন্ট কমিশন ইন্টারন্যাশনাল (জেসিআই)স্বীকৃত হয়েছে এভারকেয়ার হসপিটাল ঢাকা। এখানে রয়েছে ৪২৫ শয্যাবিশিষ্ট মাল্টি-ডিসিপ্লিনারিসুপার-স্পেশালিটি টারশিয়ারি কেয়ার ইউনিট, যেখানে অত্যাধুনিক চিকিৎসা, অস্ত্রোপচারএবং ডায়াগনস্টিক সুবিধাসহ সব ধরনের স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হয়। ৪ লক্ষ ৩৫ হাজারবর্গফুট জায়গার ওপর নির্মিত হাসপাতালটি রোগীদের জন্য সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্নচিকিৎসা সেবা এবং বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের থেকে সর্বোচ্চ মানের সেবা নিশ্চিত করে আসছে।

বিভি/এজেড

মন্তব্য করুন:

সর্বাধিক পঠিত
Drama Branding Details R2
Drama Branding Details R2