• NEWS PORTAL

  • শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

১৪৪ ধারার মধ্যেই শপথ নিলেন সিন্ধুর এমপিরা

প্রকাশিত: ১৭:২৯, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ফন্ট সাইজ
১৪৪ ধারার মধ্যেই শপথ নিলেন সিন্ধুর এমপিরা

ছবি: নবনির্বাচিত সদস্যদের শপথ

পাকিস্তানে সিন্ধু বিধানসভার উদ্বোধনী অধিবেশনে সম্পন্ন হয়েছে নবনির্বাচিত এমপিদের শপথ গ্রহণ। ১৪৪ ধারা চলছে প্রদেশটিতে। এরই মধ্যে শনিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) এই প্রদেশের বিধানসভায় পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) থেকে ১১১ জন এবং মুত্তাহিদা কওমি মুভমেন্ট (এমকিউএম) থেকে ৩৬ জনসহ মোট ১৪৮ সদস্য শপথ নেন। 

সিন্ধু বিধানসভা মোট ১৬৮ সদস্য নিয়ে গঠিত। এর মধ্যে ১৩০টি সাধারণ আসন, ২৯টি নারীদের জন্য এবং নয়টি সংখ্যালঘুদের জন্য সংরক্ষিত।

আগা সিরাজ দুররানি প্রাদেশিক আইনসভার নবনির্বাচিত সদস্যদের শপথ পড়ানোর আগে প্রথমে তিনি নিজে সিন্ধু ভাষায় স্পিকার হিসেবে শপথগ্রহণ করেন। এর পর তিনি নবনির্বাচিত আইনপ্রণেতাদের শপথ পাঠ করান। 

এ সময় প্রথম ব্যাচের সদস্যরা সিন্ধুতে, দ্বিতীয়টি উর্দুতে এবং তৃতীয় ব্যাচের সদস্যরা ইংরেজিতে শপথ নেন। শপথগ্রহণের সময় গ্র্যান্ড ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (জিডিএ), জামায়াতে ইসলামি (জেআই), জমিয়তে উলেমা-ই-ইসলাম (জেইউআই) এবং পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত স্বতন্ত্র সদস্যরা অনুপস্থিত ছিলেন। দলগুলো এই পরিষদের নির্বাচনে ভোট জালিয়াতির অভিযোগে পরিষদ ভবনের বাইরে প্রতিবাদ কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছিলো। 

আর তাই আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিশ্চিত করতে আগেই ব্যবস্থা নেয় প্রাদেশিক সরকার। শুক্রবার ১৪৪ ধারা জারি করে একটি নোটিশ জারি করে কর্তৃপক্ষ। নোটিশে বলা হয়, সিন্ধু সরকার দণ্ডবিধির ১৪৪ ধারার অধীনে আগামী ৩০ দিনের জন্য প্রাদেশিক পরিষদের করাচি ডিভিশনের সাউথ জোনে জনসভা, সমাবেশ, প্রতিবাদ, বিক্ষোভ নিষিদ্ধ করছে। আর  অবিলম্বে তা কার্যকর হবে।

যদিও অধিবেশন শুরুর আগেও বিরোধী এই দলগুলোর কর্মী ও সমর্থকরা আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দেওয়া ব্যারিকেড পেরিয়ে উচ্চ নিরাপত্তাসম্পন্ন রেড জোনে প্রবেশ করে। তবে পুলিশের হস্তক্ষেপে বিক্ষোভকারীরা বিধানসভার কাছাকাছি পৌঁছাতে পারেননি। 

এ সময় করাচি জুড়ে বিরোধী দলের বেশ কয়েকজন সদস্য ও সমর্থককে পুলিশ গ্রেফতার করেছে বলে জানিয়েছে জিডিএ তথ্য সচিব সরদার আবদুল রহিম। কওমি আওয়ামী তেহরিকের একজন মুখপাত্র জানান, পুলিশ এদিন প্রায় ১৫০ দলীয় কর্মীকে গ্রেফতার করে।  সূত্র: দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

বিভি/এমআর

মন্তব্য করুন: