• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

এরদোয়ানকে ‘ষাঁড়’ বলে কারাগারে সাংবাদিক

প্রকাশিত: ১৮:১০, ২৩ জানুয়ারি ২০২২

ফন্ট সাইজ
এরদোয়ানকে ‘ষাঁড়’ বলে কারাগারে সাংবাদিক

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানকে কটূক্তির অভিযোগে সুপরিচিত টেলিভিশন নারী সাংবাদিক সেদেফ কাবাসকে আটকের পর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) রাত ২টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে তাঁকে আটক করে থানায় নেয় পুলিশ। আদালতে বিচার শুরুর আগেই তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

কাবাস-এর বিরুদ্ধে কটূক্তির অভিযোগটি একটি প্রবাদ, যা তিনি বিরোধী টিভি চ্যানেল ও টুইটার অ্যাকাউন্টে প্রকাশ করেছিলেন। প্রবাদটির অনুবাদ হলো- ‌‘যখন ষাঁড় প্রাসাদে আসে, তখন সে রাজা হয় না। কিন্তু প্রাসাদটি গোয়ালঘরে পরিণত হয়।’

কাবাস-এর এমন কথায় খেপেছে এরদোয়ান সরকার। প্রেসিডেন্টের প্রধান মুখপাত্র ফাহরেত্তিন আলতুন এই মন্তব্য বর্ণনা করে কাবাসকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন’।

টুইটারে তাঁর জবাব, ‘এক কথিত সাংবাদিক টেলিভিশন চ্যানেলে চরমভাবে আমাদের প্রেসিডেন্টকে অপমান করেছেন। ঘৃণা ছড়ানো ছাড়া যার কোনো লক্ষ্য নেই।’

অভিযোগ প্রমাণিত হলে এক থেকে চার বছরের কারাদণ্ড হতে পারে কাবাস-এর। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করছেন কাবাস। আদালতে দেওয়া এক বিবৃতিতে কাবাস জানান, প্রেসিডেন্টকে অপমান করার কোনো অভিপ্রায় তাঁর ছিলো না।

কাবাস যে টেলিভিশন চ্যানেলে মন্তব্য করেছেন সেই টেলি ওয়ান চ্যানেলের প্রধান সম্পাদক মেরদান ইয়ানারদাগ তাঁকে আটকের সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেন, একটি প্রবাদের জন্য রাত ২টায় আটকের ঘটনা অগ্রহণযোগ্য। সরকারের এই অবস্থান হলো সাংবাদিক, গণমাধ্যম ও সমাজকে ভয় দেখানোর প্রয়াস।

বিভি/রিসি 

মন্তব্য করুন: