• NEWS PORTAL

  • বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২ | ১৬ আষাঢ় ১৪২৯

বাথরুমে টুথব্রাশ রাখতে গিয়ে যে ভুলগুলো করবেন না

প্রকাশিত: ১৮:৪৪, ১০ জুন ২০২২

ফন্ট সাইজ
বাথরুমে টুথব্রাশ রাখতে গিয়ে যে ভুলগুলো করবেন না

জীবনের নানান আনুষাঙ্গিকের মধ্যে টুথব্রাশ অন্যতম। প্রাচীন মানুষের মধ্যে ব্রাশের ব্যবহার না থাকলেও দাঁতের যত্নের জন্য ছিল বিভিন্ন গাছের ডাল কিংবা অন্যান্য জিনিস। তবে সময়ের সাথে সাথে বদলেছে সবকিছু। বদলেছে জীবন ধারণের উপকরণও। সেভাবেই আমাদের জীবনে ঠাঁই করে নিয়েছে টুথব্রাশ।

তবে দাঁতের যত্নের বিষয়ে সচেতন হলেও, টুথব্রাশ নিয়ে কিন্তু আমরা মোটেই সচেতন নই। অথচ এই দাঁত মাজার ব্রাশ থেকেই বাড়ে সংক্রমণের ঝুঁকি।

এবার জেনে নিন, দাঁতের সংক্রমণ এড়াতে বাথরুমে টুথব্রাশ রাখার ক্ষেত্রে যেসব ভুল এড়িয়ে চলবেন-

* বাথরুমে টুথব্রাশ না রাখার পক্ষেই মত দিয়েছেন বেশিরভাগ ডেন্টিস্ট।

* যদিও কেউ বাথরুমে টুথব্রাশ রাখেন, তবে কমোডের আশেপাশে নয়। এতে ব্রাশে ব্যাক্টেরিয়ার বাসা বাঁধার আশঙ্কা বাড়ে।

* ব্রাশে ঢাকনা পরিয়ে রাখতে হবে তা না হলে ব্রাশে জীবাণুর বংশবৃদ্ধির আশঙ্কা বাড়ে। তবে এর ঢাকনা মাঝেমধ্যে পরিষ্কার করতে হবে।

* বাড়ির সবার ব্রাশ একসঙ্গে রাখা উচিত নয়। এই অভ্যাস কিন্তু স্বাস্থ্যকর নয়। কারণ এতে এক টুথব্রাশ থেকে অন্য ব্রাশে জীবাণু ছড়ায়।

* একই ব্রাশ দিনের পর দিন ব্যবহার করা ঠিক নয়। তিন মাস অন্তর ব্রাশ বদলে ফেলা উচিত। দিনের পর দিন একই ব্রাশ ব্যবহার করলে কেবল সংক্রণমের ঝুঁকি বাড়ে না, আপনার দাঁতের স্বাস্থ্যেরও ক্ষতি হয়।

* টুথব্রাশ ব্যবহারের পর অবশ্যই ঠিকমতো ধুয়ে রাখুন। ব্রাশ পরিষ্কার রাখা ভীষণ জরুরি। সম্ভব হলে ব্রাশ করার পর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে রাখুন। এতে জীবাণু সংক্রমণের ঝুঁকি অনেকটাই কমে যাবে।

* সর্বোপরি দাঁতের ডাক্তারের সাথে যোগযোগ রাখুন। তাদের পরামর্শ অনুযায়ী ব্রাশ কিনে নিন। যত্রতত্র সেখান সেখান থেকে অল্পদামী ব্রাশ কিনবেন না।

বিভি/এজেড

মন্তব্য করুন: