• NEWS PORTAL

  • রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪

Inhouse Drama Promotion
Inhouse Drama Promotion

সেন্টমার্টিন ইস্যুতে যা বললেন মির্জা ফখরুল

প্রকাশিত: ২০:৪৫, ১৫ জুন ২০২৪

আপডেট: ২০:৪৬, ১৫ জুন ২০২৪

ফন্ট সাইজ
সেন্টমার্টিন ইস্যুতে যা বললেন মির্জা ফখরুল

ছবি: আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব

সেন্টমার্টিন দ্বীপের সাম্প্রতিক ঘটনায় সরকারের ‘নিশ্চুপ’ ভূমিকা তাদের নতজানু পররাষ্ট্রনীতির প্রকাশ বলে মন্তব্য করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শনিবার (১৫ জুন) দুপুরে এক আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব এই মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘পত্রিকায় খবরে এসেছে, সেন্টমার্টিন দ্বীপ নিয়ে সংকট, সেখানে আতঙ্ক …… কি দূঃখজনক? মানে এটাকে কি বলবো? কত ব্যর্থতা এই সরকারের যে আমাদের একটা দ্বীপ সেই দ্বীপে আমরা যেতে পারছি না, গেলেই অন্যদেশ থেকে গুলি করা হচ্ছে এবং মেরেও ফেলা হয়েছে। অথচ এখন পর্যন্ত সরকার কোনো রকমের কোনো বক্তব্য পর্যন্ত দেয়নি। হোম মিনিস্টার সাহেব বললেন, এখনো এমন কোনো অবস্থা হয়নি যে, এটাতে আমরা স্টেটমেন্ট দেবো বা কিছু বলব।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই যে নতজানু… মিয়ারমারের মতো দেশকেও কিছু বলা যাবে না। এটা কতোটা দাসসুলভ মনোভাব হতে পারে…. একটা কথা মনে পড়ে যে, দাস্য সুখে হাস্য মুখে। সুখ তো হাস্য সুখ, মুক্ত হাসি।’

‘সীমান্তে লোক মারছে একটা কথা বলে না, পানি দেয় না একটা কথা বলে না। আর সেন্ট মার্টিনে খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। সেখানে কয়েক লাখ মানুষ বিপদগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। অথচ এ্নিয়ে সরকারের কোন মাথা ব্যথা নেই।’

জাতীয় প্রেসক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে বিএনপি সমর্থিত ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের উদ্যোগে ‘১৬ জুন সংবাদপত্রের কালো দিবস’ উপলক্ষে এই আলোচনা সভা হয়। ১৯৭৫ সালের ১৬ জুন চারটি পত্রিকা রেখে বাকিগুলো বন্ধ করে দেয় তৎকালীন আওয়ামী লীগ সরকার। এজন্য সাংবাদিকদের একটি অংশ দিনটিকে কালো দিবস হিসেবে পালন করে আসছে। কালো দিবস ও বর্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন বিএফইউজের মহাসচিব কাদের গনি চৌধুরী।

মির্জা ফখরুল বলেন,‘সাংবাদিকরা এক প্লাটফর্মে আসুন। আমি সবার কথা বলছি না, আমি গণতন্ত্রে যারা বিশ্বাস করেন, তারা যদি একই জায়গায় আসেন তাহলে কিন্তু আমার মনে হয় আপনারা অনেক বেশি শক্তিশালী হবেন।’

‘বাংলাদেশে সমস্ত মানুষ যেদিন নেমে আসবে যেটা অতীতে আমাদের এদেশে হয়েছে সেই কাজগুলো আমাদের করতে হবে, মানুষকে নামিয়ে আনতে হবে, মানুষকে জাগিয়ে তুলতে হবে, সব জায়গায় যেতে হবে। তরুণ-যুবকদের সক্রিয় করতে হবে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘ জাতির জন্য এর চেয়ে ঘন অমানিষা আর কখনো আসে নাই। সব দিক দিয়ে আমাদের সমস্ত আশা-আকাঙ্ক্ষা বিপন্ন করে দেয়া হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আমি কাল একটা টেলিভিশনে… সংবাদ প্রচারের আগে শেখ মুজিবু্র রহমানের কিছু বানী প্রচার করা হয়। উনি (শেখ মুজিবুর রহমান) বলছেন, যারা সম্পদ লুন্ঠন করে, সম্পদ পাচার করে নিয়ে যায় তাদের এদেশের মাটিতে কোনো জায়গা নেই। আমি বলি, আজকে যারা ক্ষমতায় আছে তারা কি এটা একবারও শুনছে, দেখছে?”

বিএফইউজের সভাপতি রুহুল আমিন গাজীর সভাপতিত্বে ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শহিদুল ইসলাম সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় নয়া দিগন্তের সম্পাদক আলমগীর মহিউদ্দিন, জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক মোস্তফা কামাল মজুমদার, এম এ আজিজ, আবদুল হাই শিকদার, বাকের হোসাইন, সৈয়দ আবদাল আহমেদ, ইলিয়াস খান, কায়কোবাদ মিলন, প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।

বিভি/এমআর

মন্তব্য করুন:

Drama Branding Details R2
Drama Branding Details R2