• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

বিএনপি নির্বাচনের মাঠে যাবে, ভোট চোরের মাঠে নয়ঃ আমির খসরু 

যশোর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২২:৪১, ১৪ মে ২০২২

ফন্ট সাইজ
বিএনপি নির্বাচনের মাঠে যাবে, ভোট চোরের মাঠে নয়ঃ আমির খসরু 

আন্দোলন চলছে, মানুষ সুসংগঠিত হচ্ছে, শক্তিশালী জাতীয় ঐক্য গড়ে উঠছে, সরকারের পতন ঘনিয়ে আসছে, সঠিক সময়ে সরকারের পতন নিশ্চিত হবে ইনশাআল্লাহ। বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সাবেক মন্ত্রী আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী শনিবার (১৪ মে) বিকালে যশোর জেলা বিএনপি আয়োজিত কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই কথা বলেন। 

দলীয় কার্যালয় চত্বরে জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপির খুলনা বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত। 

আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী সরকারের মন্ত্রীদের কটাক্ষের জবাবে বলেন, আন্দোলন কবে হবে? ঈদের আগে নাকি পরে? আমরা বলতে চাই আন্দোলন চলমান। দেশের জনগণ সরকারের হাত থেকে মুক্তির জন্য উন্মুখ হয়ে আছে। আমরা গেল রমজান মাসব্যাপী সারা দেশে ইফতার মাহফিলের মাধ্যমে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করেছি। সেখানে আমরা দেখেছি, জনগণের মাঝে আন্দোলন শুরু হয়ে গেছে। আজকে যে কর্মসূচি এটিও আন্দোলনের অংশ। জনগণের মাঝে যে তীব্র আন্দোলন শুরু হয়েছে, তা থেকে তীব্রতর আন্দোলনের মধ্য দিয়ে এই সরকার পালানোর পথ খুঁজে পাবে না। তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ বলছে বিএনপি নির্বাচনের মাঠে না গেলে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে।

আমরা বলতে চাই বিএনপি নির্বাচনের মাঠে যাবে, ভোট চোরের মাঠে নয়। আগামী নির্বাচনে জনগণকে সাথে নিয়ে ভোট চোরদের বিতাড়িত করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন আদায় করেই ছাড়বে। সেই নির্বাচনে জনগণকে সাথে নিয়ে বিএনপি অংশ নিয়ে জনতার বিজয় সুনিশ্চিত করবে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ রাজনৈতিক দল হিসেবে নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। যে কারণে তারা তাদের লালিত সন্ত্রাসী ও প্রশাসন দিয়ে বিএনপিসহ ভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের ওপর ন্যাক্কারজনক হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। তারা জনগণের রায়ে নয়, তাদের ভোট চুরি করে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে আছে। জনগণ দখলদার আওয়ামী লীগকে উৎখাত করেই ছ্ড়াবে ইনশাআল্লাহ। 

বিশেষ অতিথি বিএনপির খুলনা বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত সমাবেশে আসার পথে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি সহমর্মিতা প্রকাশ করেন। সমাবেশ শেষ করে তিনি প্রধান অতিথি আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীকে সাথে নিয়ে আহতদের দেখতে হাসপাতালে যান।

সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাড. সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু ও সাবিরা নাজমুল মুন্নি, জেলা আহ্বায়ক কমিটির সদস্য আব্দুস সালাম আজাদ, আলহাজ মিজানুর রহমান খান, সদর উপজেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক কাজী আজম, শার্শা উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক খায়রুজ্জামান মধু, ঝিকরগাছা উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক মোর্ত্তজা এলাহী টিপু, কেশবপুর পৌর বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস সামাদ বিশ্বাস, মণিরামপুর উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাড. শহীদ ইকবাল হোসেন, বাঘারপাড়া পৌর বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল হাই মনা, জেলা যুবদলের সভাপতি এম তমাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আনসারুল হক রানা, জেলা মহিলাদলের সভানেত্রী রাশিদা রহমান, জেলা শ্রমিকদলের সভাপতি এস এম মিজানুর রহমান, জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আমির ফয়সাল, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রাজিদুর রহমান সাগর প্রমুখ। সমাবেশ পরিচালনা করেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য অ্যাড. হাজী আনিছুর রহমান মুকুল। 

 

বিভি/আরজে/রিসি 

মন্তব্য করুন: