• NEWS PORTAL

  • সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২

আ.লীগ-জামায়াত পরকিয়া চলছে, বিএনপির এমন বক্তব্যে ক্ষেপলো জামায়াত

প্রকাশিত: ২২:৩৫, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

আপডেট: ২৩:৩২, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

ফন্ট সাইজ
আ.লীগ-জামায়াত পরকিয়া চলছে, বিএনপির এমন বক্তব্যে ক্ষেপলো জামায়াত

জামায়াতের নিবন্ধন বাতিল না করা প্রসঙ্গে প্রশ্ন তুলে গতকাল বিএনপি নেতা ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু বলেছেন, আওয়ামী লীগের সঙ্গে জামায়াতের পরকিয়া চলছে কিনা খতিয়ে দেখা দরকার। 

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্যের এমন বক্তব্যে ক্ষেপেছে জামায়াতে ইসলামি। ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর বক্তব্য অশালীন দাবি করে এই বক্তব্যের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন দলটির সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা আবদুল হালিম।

 মঙ্গলবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এই প্রতিবাদ জানানা।

বিবৃতিতে জামায়াতের সহকারী সেক্রেটারি বলেন, “২৬ সেপ্টেম্বর বিএনপির এক সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য জনাব ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু জামায়াতে ইসলামী সম্পর্কে যে রাজনৈতিক শিষ্টাচার বহির্ভূত, অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য প্রদান করেছেন তা দেশবাসীকে বিস্মিত করেছে। এটি কোনো রাজনীতিবিদের ভাষা হতে পারে না। তার এ বক্তব্য স্বৈরাচারী শাসনকে প্রলম্বিত করার ক্ষেত্র তৈরি করবে। যে মুহূর্তে দেশের সকল গণতান্ত্রিক শক্তি ঐক্যবদ্ধভাবে দেশে গণতন্ত্র ও জনগণের ন্যায্য ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নির্বাচন কালীন দলনিরপেক্ষ সরকার প্রতিষ্ঠায় বদ্ধপরিকর, সে সময় তার এ বক্তব্য জাতিকে হতাশ করেছে। তার বক্তব্য থেকে প্রতীয়মান হয়, তিনি জনগণের ভাষা বুঝতে অক্ষম এবং তিনি জনগণের ভাষায় কথা বলতে পারেন না। আমরা তার এ বক্তব্যের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, বিগত এক যুগেরও বেশি সময় যাবত বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর নেতা-কর্মীগণ বর্তমান সরকারের জুলম-নির্যাতনের শিকার হয়ে আসছে। যে দলটির আমির, সেক্রেটারি জেনারেল, সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল, কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্যসহ ৫ জন শীর্ষস্থানীয় নেতাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে বিচারের নামে প্রহসনের আয়োজন করে ফাঁসি দেয়া হয়েছে; আরও ৬ জন শীর্ষ নেতাকে দণ্ড দিয়ে কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে এবং ৩ জন মজলুম নেতা কারাগারে ইন্তিকাল করেছেন, সে দলটি সম্পর্কে ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর বক্তব্য সম্পূর্ণ রাজনৈতিক শিষ্টাচার বহির্ভূত। তার বক্তব্যে গণতান্ত্রিক আন্দোলন বাধাগ্রস্ত করার ইঙ্গিত লুকিয়ে রয়েছে।

জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন বাতিল ও বেআইনি ঘোষণা সংক্রান্ত বিষয়ে তার কথা ও মর্মবেদনায় জনগণের মধ্যে প্রশ্ন সৃষ্টি হয়েছে দাবি করে, কার স্বার্থে এবং কাকে সন্তুষ্ট করার জন্য টুকু এ বক্তব্য দিয়েছেন সেই প্রশ্ন তোলেন জামায়াতের এই নেতা।

মাওলানা আব্দুল হালিম বলেন, আমরা স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, জামায়াতে ইসলামি কখনও কোনো আপোষ, গোপন ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না এবং করার প্রশ্নই আসে না। 

ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু ‘জামায়াত’ শব্দটিকে ‘উর্দু’ ভাষা বলে উল্লেখ করে অজ্ঞতার পরিচয় দিয়েছেন বলেও মন্তব্য । আমরা আশা করছি ভবিষ্যতে এ ধরনের অসংলগ্ন বক্তব্য প্রদান করা থেকে সংশ্লিষ্ট সকলেই বিরত থাকবেন।”

বিভি/কেএস

মন্তব্য করুন: