• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১ | ১৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৮

BVNEWS24 || বিভিনিউজ২৪

ঋণ-বিল খেলাপি: সবার সমান সুযোগ চায় ইসি

প্রকাশিত: ২২:৪৮, ৩১ অক্টোবর ২০২১

আপডেট: ২১:৪৬, ২ নভেম্বর ২০২১

ফন্ট সাইজ
ঋণ-বিল খেলাপি: সবার সমান সুযোগ চায় ইসি

ঋণ ও বিল খেলাপিদের ক্ষেত্রে সবাইকে সমান সুযোগ দিতে চায় নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এই জন্য গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) সংশোধন করে সবার জন্য সমান সুযোগ দেওয়ার প্রস্তাব করেছে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি। ইসি সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে। 

সূত্র জানায়, ইসি’র প্রস্তাবিত সংশোধিত আরপিও-এর প্রস্তাবনাটি রবিবার (৩১ অক্টোবর) আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। এখন মন্ত্রণালয় এটি দেখে সংসদে পাঠাবে। 
এই বিষয়ে কথা হলে ইসি’র আইন সংস্কার কমিটির প্রধান ও নির্বাচন কমিশনার বেগম কবিতা খানম বাংলাভিশন ডিজিটালকে বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে বড় বড় ঋণ খেলাপীদের মনোনয়নপত্র দাখিলের আগের দিন ঋণ পরিশোধ করার সুযোগ দেওয়া হয়। কিন্তু বর্তমানে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সাতদিন পূর্বে ক্ষুদ্র ঋণ ও বিল পরিশোধের বিধান রয়েছে। এই জন্য সবাইকে সমান সুযোগ দিতে সংশোধিত আরপিওতে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার আগের দিন পর্যন্ত ঋণ ও বিল পরিশোধের সুযোগ দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। 

তিনি বলেন, আরপিওতে আমুল পরিবর্তন করা হয়নি। ছোট ছোট ঋণ খেলাপীদের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সাত দিন পূর্বে পরিশোধ করার পরির্বতে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পূর্বের দিন যেন তারা ঋণ পরিশোধের সুযোগ পায়, আমরা সেই প্রস্তাবনা দিয়েছি।

কমিশন কেন এমন প্রস্তাবনা দিচ্ছে? জানতে চাইলে তিনি বলেন, যেহেতু বড় ঋণ খেলাপিদের আগেই এই সুযোগ দেওয়া হয়েছে। তাই সবাইকে সমান সুযোগ দিতেই এমন প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে। 

তিনি আরও বলেন, এছাড়াও আমরা আরেকটি বিষয়ে প্রস্তাবনা দিয়েছি, সেটি হলো নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের কেন্দ্রিয়সহ সব ধরণের কমিটিতে ২০২০-এর মধ্যে ৩৩ শতাংশ নারী নেতৃত্ব রাখার কথা ছিলো। সেই সময়টি পার হয়েছে গেছে। তাই আমরা এই সময় বাড়িয়ে ২০৩০ পর্যন্ত করার প্রস্তাব দিয়েছি। 

সূত্র জানায়, বিদ্যমান ব্যবস্থায় কোনো কোম্পানীর পরিচালক বা ফার্মের অংশীদারের ক্ষেত্রে কোনো ব্যাংক থেকে নেওয়া বড় ধরণের ঋণ বা তার কিস্তি মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার আগের দিন পরিশোধ করার বিধান রয়েছে। কৃষি ও অন্যান্য ক্ষুদ্র ঋণ এবং ব্যক্তিগত (টেলিফোন, গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি, বা সরকারের সেবা দেওয়া কোনো সংস্থার) বিলের ক্ষেত্রে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সাতদিন আগে পরিশোধের বিধান রয়েছে। তাই বড় ধরণের ঋণ এবং ক্ষুদ্র ঋণ ও বিল পরিশোধের জন্য অভিন্ন সময়সীমা রাখার জন্য আরপিওতে প্রস্তাব করা হয়েছে। এটি হলো সবার জন্য সমান সুযোগ নিশ্চিত হবে। 

আরপিও সংশোধনের কাজ আগেই করা হয়েছিলো। কিন্তু মহামারি করোনা’র কারণে এটি মন্ত্রণালয়ে পাঠাতে দেরি হলো বলেও জানায় ইসি সূত্র। 

 

বিভি/এইচকে/রিসি 

মন্তব্য করুন: