• NEWS PORTAL

শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

সরকারের একার পক্ষে দূষণ নিয়ন্ত্রণ দুঃসাধ্য: পরিবেশ মন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক 

প্রকাশিত: ২০:৪১, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

ফন্ট সাইজ
সরকারের একার পক্ষে দূষণ নিয়ন্ত্রণ দুঃসাধ্য: পরিবেশ মন্ত্রী

সরকারের একার পক্ষে দূষণ নিয়ন্ত্রণ দুঃসাধ্য বলে জানিয়েছেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন। বুধবার বায়ুদূষণ রোধে সরকার ঘোষিত বিশেষ অভিযানে আজ ঢাকা ও আশেপাশের পাঁচ স্থানে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়েছে। এ অভিযানে পরিবেশ দূষণের দায়ে মোট ২৬টি যানবাহনকে ৮৫ হাজার টাকা এবং ১০টি প্রতিষ্ঠানকে তিন লাখ ৬০ হাজার টাকা জরিমানা ধার্যপূর্বক আদায় করা হয়েছে।

পরিবেশ দূষণবিরোধী অভিযান ও পরিবেশ সংরক্ষণ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আজ ১ ফেব্রুয়ারি পরিবেশ অধিদপ্তরের মনিটরিং এন্ড এনফোর্সমেন্ট উইং, ঢাকা মহানগর কার্যালয়, ঢাকা জেলা কার্যালয়, গাজীপুর জেলা কার্যালয় ও জেলা প্রশাসন ঢাকা এর উদ্যোগে ঢাকা জেলার সাভার, মানিকমিয়া এভিনিউ, খিলক্ষেত, আফতাবনগর এবং গাজীপুর জেলার বাইপাস এক্সপ্রেস ওয়ে এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়।

এর মধ্যে মানিক মিয়া এভিনিউ, খিলক্ষেত ও আফতাবনগরে পরিচালিত অভিযান পরিদর্শন করেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন। মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার, সচিব ডক্টর ফারহিনা আহমেদ এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডক্টর আবদুল হামিদ সহ মন্ত্রণালয় ও অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন। 

উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে পরিবেশমন্ত্রী বলেন, বায়ুদূষণ নিয়ন্ত্রণে যা যা করা দরকার সরকার তা করবে। জনগণ যাতে স্বাস্থ্যসম্মত পরিবেশে বসবাস করতে পারে তার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হবে।  তিনি বলেন সরকার জনসচেতনতার ওপর গুরুত্ব দিয়ে আসছে। একইসাথে সরকার বায়ুদূষণকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ অব্যাহত রাখবে। 

পরিবেশ উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার বলেন, সমাজের সবাইকে নিজ নিজ দায়িত্ব সচেতনভাবে পালন করলে বায়ুদূষণ নিয়ন্ত্রণে আসবে। পরিবেশ যাতে দূষিত না হয় এবিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। শুধুমাত্র সরকারের একার পক্ষে দূষণ নিয়ন্ত্রণ দুঃসাধ্য। 

মন্ত্রণালয়ের সচিব বলেন, বায়ুদূষণকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সকল ডিসিদের আহবান জানানো হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সকল মন্ত্রণালয় যাতে স্ব স্ব দায়িত্ব সঠিক ভাবে পালন করে এ জন্য ২ ফেব্রুয়ারি মন্ত্রিপরিষদ সচিবের সভাপতিত্বে এক বিশেষ সভা আহবান করা হয়েছে। ঐ সভায় বায়ুদূষণ নিয়ন্ত্রণে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোর করণীয় বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ এবং বাস্তবায়নের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে। 

আজ এ অভিযানের অংশ হিসেবে ঢাকা বাইপাস এক্সপ্রেসওয়ে এবং বিআরটি মহাসড়ক নির্মাণকারী ২টি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে মোট ১ লক্ষ টাকা জরিমানা ধার্যপূর্বক আদায় করা হয়। সাভার এলাকায় মোবাইল কোর্টে যানবাহনের মানমাত্রাতিক্ত হর্ন দ্বারা শব্দ দূষণের দায়ে ৪টি যানবাহন হতে মোট ১১ হাজার টাকা এবং যানবাহনের কালোধোঁয়া দ্বারা বায়ুদূষণের দায়ে ৪টি যানবাহন হতে মোট ১০ হাজার টাকা জরিমানা ধার্যপূর্বক আদায় করা হয়।

খিলক্ষেত এলাকায় মোবাইল কোর্টে যানবাহনের মানমাত্রাতিক্ত হর্ন দ্বারা শব্দদূষণের দায়ে ৭টি যানবাহন হতে মোট ৩৫ হাজার টাকা এবং নির্মাণ সামগ্রী খোলা অবস্থায় রেখে বায়ুদূষণের দায়ে ২টি প্রতিষ্ঠান হতে মোট ১০ হাজার টাকা জরিমানা ধার্যপূর্বক আদায় করা হয়। আফতাবনগর এলাকায় মোবাইল কোর্টে নির্মাণ সামগ্রী খোলা অবস্থায় রেখে বায়ুদূষণের দায়ে ৭টি প্রতিষ্ঠান হতে মোট ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা ধার্যপূর্বক আদায় করা হয়। মানিকমিয়া এভিনিউ এলাকায় মোবাইল কোর্টে যানবাহনের কালোধোঁয়া দ্বারা বায়ুদূষণের দায়ে ১১টি যানবাহন হতে মোট ২৯ হাজার টাকা জরিমানা ধার্যপূর্বক আদায় করা হয়।

বিভি/এইচএস

মন্তব্য করুন:

সর্বাধিক পঠিত