• NEWS PORTAL

  • বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

সাফল্য

বোমারু বিমান তৈরী করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন স্কুলছাত্র
বোমারু বিমান তৈরী করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন স্কুলছাত্র

সাতক্ষীরা তালা উপজেলার আলাদিপুর গ্রামের রাইস মিল ব্যবসায়ী আতিয়ার মোড়লের ছেলে বোরহান মোড়ল। তালা সরকারি বি.দে. মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে মানবিক বিভাগে শবে এসএসসি পাস করেছে। করোনা কালীন সময়ে স্কুল বন্ধ থাকায় বোরহানের বাড়িতে অলস সময় কাটছিল। এসময় মোবাইলের মাধ্যমে ইউটিউবে বিমান তৈরির ভিডিও দেখে ঘরে বসেই কটশিট, মটর, ব্যাটারি ও বিভিন্ন ডিভাইস দিয়ে নিজের প্রচেষ্টায় তৈরি করে যুদ্ধের বিমান। কিন্তু বার বার উড়াতে ব্যর্থ হয়েও থেমে থাকেনি বোরহান। ১০ থেকে ১৫ বার বিমানটি উড়াতে ব্যর্থ হয়ে অবশেষে দীর্ঘ আট মাসের প্রচেষ্টা বাস্তবে রূপ পায় বোরহানের স্বপ্ন। 

রবিবার, ১৮ ডিসেম্বর ২০২২, ১৮:৪৯

এক নারী উদ্যোক্তার লড়াই
এক নারী উদ্যোক্তার লড়াই

অবস্থা খারাপ হওয়ায় একমাস আগেই ডেলিভারি করতে বাধ্য হন ডাক্তার। বাচ্চাটা এতো ছোট হয়েছিল যে, তার জন্য আটচল্লিশ ঘন্টা পিআইসিইউতে সার্ভাইভ করা কঠিন হয়ে পড়ে। এদিকে আমার স্ত্রীর পেটে ইনফেকশন ধরা পড়ে। হাসপাতালের খরচ যখন তিন লাখ টাকা ছাড়িয়ে যায় তখন বাচ্চাকে পিআইসিইউতে রেখেই স্ত্রীকে বাসায় নিয়ে আসতে বাধ্য হই। প্রচন্ড ব্যাথা নিয়ে মেয়েটা সিঁড়ি বেয়ে চারতলা বাসায় উঠেছিল। এরই মধ্যে প্রতিনিয়ত সে অফিসে ফোন করে খোঁজ নিত। বাসায় এম্প্লয়িরা আসত কাগজপত্র নিয়ে।  একপর্যায়ে বাচ্চা ও মা দুজনই সুস্থ হয়। কিন্তু পরবর্তি ছয়মাসে ছোট ছেলেটা আরো দুইবার পিআইসিউতে ভর্তি হয়, তিনবার নরমাল হাসপাতালে ভর্তি হয়, বড় মেয়ে ভর্তি হয় দুইবার। ডেলিভারির ছয়মাসের মাথায় আমার স্ত্রী’র অ্যাপেনডিসাইটিস অপারেশন হয়। এর একমাস পরে করোনায় সিভিয়ার অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়। সেসময় আমার হাত ধরে বলেছিল আমি বোধহয় মারা যাচ্ছি।

রবিবার, ২০ নভেম্বর ২০২২, ১৪:৩৫