• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

২০৩০ সালে রমজানের ৩৬টি রোজা রাখতে হবে, ৩টি ঈদের সম্ভাবনা

প্রকাশিত: ২২:০৭, ১৪ এপ্রিল ২০২২

ফন্ট সাইজ
২০৩০ সালে রমজানের ৩৬টি  রোজা রাখতে হবে, ৩টি ঈদের সম্ভাবনা

নফল রোজা অনেক রাখা যায়। বছরের কিছু হারাম দিন ছাড়া সব সময় রোজা রাখা যায়। কিন্তু ফরজ রোজা হলো ৩০ কিংবা ২৯টি। তবে ২০৩০ সালে রমজান ঘিরে রোজা রাখতে হবে ৩৬টি। শুধু তাই নয়, ওই বছর ঈদও হবে ৩টা। এমনটাই জানিয়েছেন দুবাই অ্যাস্ট্রোনমি গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হাসান আহমেদ আল হারিরি।

তিনি জানান, ইংরেজি বর্ষপঞ্জি ও চন্দ্র বছরের মাসগুলোর পার্থক্যের কারণে ২০৩০ সালে এমন কিছু ঘটবে। ২০৩০ সালে দুটি রমজান হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বছরের শুরুতে রমজানের শেষদিক আবার বছরের শেষদিকে রমজানের শুরুর দিক।

দ্য ন্যাশনাল নিউজের খবরে বলা হয়েছে, সাধারণত ইংরেজি বছরের মাসগুলো ৩০ অথবা ৩১ দিনে নির্ধারিত থাকে। কিন্তু চন্দ্র বছরের মাসগুলো নির্ধারিত হয় ২৯ অথবা ৩০ দিনে। মাসে দিনের এই পার্থক্যের কারণে ইংরেজি বছর শেষে চন্দ্র বছর ১১ দিন কমে যায়। 

এভাবে বছরে ১১ দিন পার্থক্য থেকে যাওয়ায় ২০৩০ সালে দুবার রমজান মাস পাবে মুসলিমরা।দুবার রমজান মাসের সাথে সে বছর রোজা হবে ৩৬টি। তবে এই ৩৬টি রোজা একবারে হবে না।

চন্দ্রবর্ষ হিসেব মতে, ২০৩০ সালের প্রথম রমজান মাস পাওয়া যাবে ৫ জানুয়ারি থেকে ৩ ফেব্রুয়ারি। এ হিসাবে ১৪৫১ হিজরির পবিত্র রমজান মাসের রোজা হবে ৩০টি।

এর ঠিক ১০ মাস পর আরো একটি রমজান মাস পাওয়া যাবে। অর্থাৎ ২৬ ডিসেম্বর থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত পাওয়া এই রমজান মাসে রোজা হবে ৬টি। আর যদি রোজা ২৯টি হয় তবে ঈদ হবে ৩টা। কিন্তু রোজা ৩০টি হলে ২০৩১ সালের ১ জানুয়ারি ঈদ হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

বিভি/এজেড

মন্তব্য করুন: