• NEWS PORTAL

  • বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২ | ১৬ আষাঢ় ১৪২৯

প্রশ্ন ফাঁসে জড়িত শিক্ষা কর্মকর্তা! শিক্ষাভবনজুড়ে তোলপাড়

প্রকাশিত: ২২:৪৬, ১৯ মে ২০২২

ফন্ট সাইজ
প্রশ্ন ফাঁসে জড়িত শিক্ষা কর্মকর্তা! শিক্ষাভবনজুড়ে তোলপাড়

গত শুক্রবার (১৩ মে) অনুষ্ঠিত হওয়া মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মামলাও হয়েছে। যার ফলে ৫১৩টি পদের জন্য গ্রহণ করা নিয়োগ পরীক্ষা বাতিলও হয়েছে। কিন্তু মামলার ঘটনা নিয়ে শুরু হয়েছে তোলপাড়। শিক্ষাভবনে বিরাজ করছে থমথমে পরিবেশ।

প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় গোয়েন্দা পুলিশের তদন্তে এক কর্মকর্তার নাম ঘুরে ফিরে আসছে। সর্বশেষ একজন বিসিএস ক্যাডারসহ ৬ জন গ্রেপ্তার হলেও এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় গোয়েন্দা সংস্থা তার নাম প্রকাশ করেনি।

মাউশির একাধিক সূত্র জানায়, ডিবির সন্দেহের তীর যার দিকে তিনি মাউশির শিক্ষা কর্মকর্তা চন্দ্র শেখর হালদার। শিক্ষাভবনের কর্মকর্তা প্রশ্নফাঁসে জড়িত থাকার ঘটনায় থমথমে অবস্থায় রয়েছে শিক্ষাভবন।

মাউশির একাধিক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, এই ঘটনার পর থেকেই ওই শিক্ষা কর্মকর্তা অফিস করছেন না। তিনি ছুটিতে আছেন। তবে আজ বৃহস্পতিবার থেকে মাউশিতে একটি খবর চাউর হয়েছে, বিসিএস সাধারণ শিক্ষা এই কর্মকর্তাকে বুধবার রাতে আটক করেছে আইনশৃংখলা বাহিনী। এমন খবরে অনেকেই এ বিষয়ে তাদের সংশ্লিষ্টতা থাকতে পারে এমন আতংকে ভুগছেন।

জানা যায়, এই ঘটনায় বৃহস্পতিবার মাউশির ডিজি নেহাল আহমেদ সব কর্মকর্তার সঙ্গে সভা করেছেন। সভায় অংশ নেয়া কর্মকর্তারা জানান, ডিজি স্যার এই ঘটনায় খুবই হতাশ ও বিরক্ত। এ ধরনের কোনো অভিযোগ যেন তার কানে না আসে সে বিষয়ে সবাইকে সতর্ক করেন।

দায়িত্বশীলরা জানান, এমন নিকৃষ্ট ঘটনায় শিক্ষা ক্যাডার-কর্মচারীরা একের পর এক গ্রেপ্তার হচ্ছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত মাউশি ডিবির তদন্তের দিকেই তাকিয়ে আছে। বিষয়টি খুবই অস্বস্তিকর। কারণ শিক্ষায়ও প্রশাসন বলে একটি শব্দ রয়েছে। এক্ষেত্রে তাদেরও একটি নিরপেক্ষ তদন্ত কমিটি করা উচিত।

অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক পদে গত শুক্রবার ঢাকার ৬১টি কেন্দ্রে পরীক্ষা হয়। ৫১৩টি পদের জন্য পরীক্ষার্থী ছিলেন ১ লাখ ৮৩ হাজার। রাজধানীর ইডেন মহিলা কলেজ কেন্দ্রে পরীক্ষা চলাকালে প্রশ্নপত্র ফাঁস করার অভিযোগে সুমন জোয়ার্দ্দার নামে একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।  এই কেন্দ্রের দায়িত্বে ছিলেন চন্দ্রশেখর হালদার। তার সঙ্গী ছিলেন মাউশির কর্মচারী বেলাল।

বিভি/এজেড

মন্তব্য করুন: