• NEWS PORTAL

  • বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

স্বামী-স্ত্রীর যে গল্পটি কাঁদিয়েছে অনেককে

প্রকাশিত: ১৮:১০, ৬ অক্টোবর ২০২২

ফন্ট সাইজ
স্বামী-স্ত্রীর যে গল্পটি কাঁদিয়েছে অনেককে

প্রতীকী ছবি

সম্প্রতি ফেসবুকে ঘুরে বেড়াচ্ছে একটি কাল্পনিক কাহিনী। যদিও এর কোনো বাস্তব মিল পাওয়া যায়নি। তবে একটু ভালো করে দেখলে হয়তো এরকম ঘটনা পাওয়া যাবে আমাদেরই চারপাশে। গল্পটি এক দম্পতির। যেখানে স্বামী তার স্ত্রীর ওপর অত্যাচার করে। কিন্তু শেষ পর্যায়ে গিয়ে স্ত্রীকে ভীষণ ভালোবাসতে শুরু করে।

চলুন একটু পড়ে নেওয়া যাক গল্পটি....

ওই স্বামী তার স্ত্রীর গায়ে হাত তুললো-
তাতে রাগ করে স্ত্রী বললো: আমি অভিযোগ করতে যাচ্ছি।
স্বামী: তোমাকে বাহিরে যাওয়ার অনুমতি কে দিবে?
স্ত্রী: তুমি কি মনে কর যে, তুমি আমাকে বাধা দিতে পারবে?
স্বামী: তুমি যা ইচ্ছা তাই কর। দেখি তোমার দৌঁড় কতটুকু?
স্ত্রী সাথে সাথে বাথরুমে ঢুকে পড়লো।

তাই লোকটি চিন্তা করলো: হয়তো সে বাথরুমের জানালা দিয়ে বাহিরে যাওয়ার চেষ্টা করছে। তাই লোকটি বাসার বাহিরে গিয়ে ভালো ভবে দেখলো। না..... তেমন কিছু বুঝা যাচ্ছে না।

একটু পর ঘরে এসে দেখলো যে, স্ত্রী ওযু করে বাথরুম থেকে বাহির হয়েছে। 
লোকটিকে উদ্দেশ্য করে বললো: আমি তার কাছেই অভিযোগ জানাবো যিনি আমাকে তোমার অধিনস্ত বানিয়েছেন। সেখানে তোমার কোন দেয়াল নেই, নেই কোন দরজা যা দিয়ে তুমি আমাকে বাধা দিবে।তার দরজা তো বন্ধ করা যায় না।

লোকটি আর কিছু বললো না। তবে একটু টেনশনে পড়ে গেলো।

স্ত্রী নামাযে দাঁড়িয়ে পড়লো। নামাযের মধ্যে সিজদা অনেক লম্বা করে দিলো। সময় গড়িয়ে যাচ্ছে কিন্তু সিজদা তো শেষ হয় না। অনেকক্ষণ পর নামায শেষ হলো।

নামায যখন শেষ করে স্ত্রী যখন দু’হাত উঠালো তখন লোকটি তার হাত ধরে ফেলে বললো: সিজদায় আমার জন্য যে পরিমাণ বদ দোয়া করেছো তাতে কি যথেষ্ঠ হয়নি?
আল্লাহ’র শপথ করে বলছি: এই একটু রাগারাগি আমি ইচ্ছা করে করিনি। তুমি আর বদ দোয়া করো না। প্লীজ!

তখন স্ত্রী বললো: এই জন্যই আমি তোমার জন্য বদ দোয়া করিনি। আমি বদ দোআ করেছি শয়তানের জন্য। আমি কি এতই বলদ যে, আমার স্বামীর জন্য বদ দোয়া করবো।
যাকে আমি জীবন দিয়ে ভালোবাসি।

কথাটি শুনে লোকটির চোখে অশ্রু চলে আসে। স্ত্রীর হাতে চুমু খেয়ে বললো: আমি তোমাকে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি: আর কখনো তোমাকে কষ্ট দিবো না।

এরকম মধুর হয়ে উঠুক আমাদের দাম্পত্য জীবন।

বিভি/এজেড

মন্তব্য করুন: