• NEWS PORTAL

  • বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

Inhouse Drama Promotion
Inhouse Drama Promotion

জিয়াউর রহমান একমাত্র কমান্ডার, যে মুক্তিযুদ্ধে যায়নি: মেয়র লিটন

সৈয়দ সাকিব, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

প্রকাশিত: ১৮:৫৫, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ফন্ট সাইজ
জিয়াউর রহমান একমাত্র কমান্ডার, যে মুক্তিযুদ্ধে যায়নি: মেয়র লিটন

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে একমাত্র কমান্ডার ছিলেন যে কখনো যুদ্ধের ময়দানে যায়নি। কোনো পাকবাহিনীকে মারেনি। কেননা তারা ছিল জিয়াউর রহমানের বন্ধু, শত্রু নয়।

সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবাস বাংলাদেশ মঞ্চে শাখা ছাত্রলীগের ২৬তম বার্ষিক সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। 

সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র লিটন বলেন, বলা যায় জিয়াউর রহমান ঘটনাক্রমে মুক্তিযোদ্ধা। পাকিস্তানিরা তাকে বিশ্বস্ত অনুচর মনে করে চট্টগ্রাম বন্দরে অস্ত্র খালাস করতে পাঠায়। কিন্তু পথিমধ্যে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে দেখা হলে তারা তাকে কালুরঘাটে পাঠান। বঙ্গবন্ধুর পাঠানো চিঠি পাঠ করে শুনানোর জন্য। কিন্তু দুঃখজনকভাবে অনেকে তাকে স্বাধীনতার ঘোষক বলে।

বাংলাদেশের রাজনীতির আকাশে আবারো দুর্যোগের ঘনঘটা দেখা যাচ্ছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এই সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বলেন,  নির্বাচন আসলেই আওয়ামী লীগের বাইরের দল যারা নিজেদেরকে জাতীয়তাবাদী হিসেবে পরিচয় দেয়; কিন্তু তারা পবিত্র ধর্ম ইসলামকে ব্যবহার করে মৌলবাদী ও চরমপন্থীর রাজনীতি করে, সেই জামায়াত-বিএনপির মাথা নষ্ট হয়ে যায়। ২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিপুল ভোটে জয়লাভের পর কেন জানি জামায়াত-বিএনপি আর নির্বাচন করতে চায় না। তাতে আমার কোনো সমস্যা নাই। কিন্তু তারা যখন বলে স্বাধীন বাংলাদেশে নির্বাচন হতে দেওয়া হবে না তখন সেটা মেনে নেয়া হবে না। 

সম্মেলনের বিশেষ অতিথি আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয় সংসদের হুইপ আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন বলেন, আজকের আলোকিত বাংলাদেশকে অন্ধকারের অতল গহ্বরে তলিয়ে নেওয়ার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। আজ থেকে ২০ বছর আগেও বাংলাদেশের ৫০ ভাগ মানুষ তিনবেলা খেতে পারতো না। উত্তরাঞ্চলের জেলাগুলোতে সবসময় মন্দা লেগে থাকত। আজকে বাংলাদেশ জননেত্রী শেখ হাসিনার মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে।পাকিস্তানের প্রেতাত্মা ও বংধরেরা বাংলাদেশকে আবার পিছিয়ে নেবার ষড়যন্ত্র করছে। জননেত্রী শেখ হাসিনা বেঁচে থাকতে আমরা বাংলাদেশকে পিছিয়ে নিতে দেব না।

এদিকে, রাবি শাখা ছাত্রলীগের বার্ষিক সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন শেষ হয়েছে। প্রতিবেদন লিখার সময় পর্যন্ত দ্বিতীয় অধিবেশন চলছে। প্রথম অধিবেশন শেষে প্রায় সাত বছর দায়িত্বে থাকা গোলাম কিবরিয়া ও ফয়সাল আহমেদ রুনুর নেতৃত্বাধীন কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়।

বিভি/রিসি

মন্তব্য করুন: