• NEWS PORTAL

  • বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

বারবার আঘাত করলে আওয়ামী লীগ আর চুপ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১৩:২১, ৮ ডিসেম্বর ২০২২

আপডেট: ১৫:১০, ৮ ডিসেম্বর ২০২২

ফন্ট সাইজ
বারবার আঘাত করলে আওয়ামী লীগ আর চুপ থাকবে না: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বারবার আঘাত করলে আওয়ামী লীগ আর চুপ থাকবে না। জনগণের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলতে দেওয়া হবে না। আওয়ামী লীগ অনেক মার খেয়েছে। এবার আর নয়। 

বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলী, দুই মহানগরের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক, সহযোগী সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা ও ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়রের যৌথ সভায় গণভবনপ্রান্ত থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে সরাসরি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগকে ক্ষমতা থেকে সরানো এতো সহজ না। সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। ২০০১ এর মতো কারো কাছে ধরনা দিয়ে আর ক্ষমতায় আসা যাবে না। আওয়ামী লীগ‌ও জানে কি করতে হবে। আওয়ামী লীগের সব নেতা-কর্মীর গায়ে বিএনপি নির্যাতনের দাগ রয়েছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ প্রতিহিংসার রাজনীতি করে না। অগ্নিসন্ত্রাস কোনো গণতন্ত্র? প্রশ্ন রাখেন প্রধানমন্ত্রী।
  
প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে ব্রিটিশ সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হবে। এদেশে ফিরেয়ে এনে সাজা বাস্তবায়ন করা হবে।

বিএনপি আওয়ামী লীগকে ভোট চুরির অপবাদ দেওয়ার চেষ্টা করেছে বলে জানান সরকারপ্রধান। 

শেখ হাসিনা বলেন, '১৯৯৬ সালে যখন আমরা ক্ষমতায় আসি, আমরা জনগনের সেবক হিসেবে কাজ করতে শুরু করলাম। জনগন সেটার সুফল পেয়েছে।'

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে এ সময় অন্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, কামরুল ইসলাম, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, ড. হাছান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, আহমেদ হোসেন, এস এম কামাল হোসেন, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, উপ দপ্তর সম্পাদক সায়েম খান ও আওয়ামী লীগের সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

সভায় ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফী, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির উপস্থিত ছিলেন। 

এ ছাড়াও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস এই সভায় উপস্থিত ছিলেন।

বিভি/টিটি

মন্তব্য করুন: