• বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ১৩ কার্তিক ১৪২৮

BVNEWS24 || বিভিনিউজ২৪

শেষের ভুলে শেষ বাংলাদেশের সাফ যাত্রা

প্রকাশিত: ১৯:০৬, ১৩ অক্টোবর ২০২১

আপডেট: ১৯:২৫, ১৩ অক্টোবর ২০২১

ফন্ট সাইজ
শেষের ভুলে শেষ বাংলাদেশের সাফ যাত্রা

ছবি: টুইটার

ছন্দে সাফ ফুটবল শুরু করা বাংলাদেশকে ‘নীল নকশা’ করে থামিয়েছিলো মালদ্বীপ। স্বাগতিক হওয়ার সুবিধা নিয়েছিলো দু’হাতে। রেফারি টেম্পারিংয়ের অভিযোগ ছিলো। জামাল ভূঁইয়াদের দর্শক সুবিধাও নিতে দেয়নি মালদ্বীপ। নেপাল ম্যাচটা ছিলো জবাব দেওয়ার সুযোগ। কিন্তু শেষ মুহূর্তে পেনাল্টি থেকে গোল খেয়ে ১-১ সমতায় এবারও গ্রুপ পর্বে বিদায় নিয়েছে বাংলাদেশ।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) মালদ্বীপের ন্যাশনাল ফুটবল স্টেডিয়ামে গ্রুপের শেষ ম্যাচে নেপালের বিপক্ষে শুরুতেই লিড নিয়েছিলো বাংলাদেশ। পাঁচ দলের সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে সরাসরি ফাইনালে যাওয়ার সমীকরণে ম্যাচের ৯ মিনিটে গোলে করেছিলেন সুমন রেজা। প্রথমার্ধে ওই গোলের লিড ধরে রেখেছিলো টিম টাইগার্স। এগিয়ে ছিলো ম্যাচের প্রায় শেষ পর্যন্ত।

গোল করে সমতায় ফেরা নেপালের উচ্ছ্বাস। ছবি: টুইটার

দীর্ঘ ১৬ বছর পর সাফের ফাইনালে যাওয়ার সুগন্ধ যখন নাকে তখনই গোল খেয়ে আশা ভঙ্গ হয় লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের। বক্সে হেড করতে যাওয়া নেপাল ফুটবলারকে ধাক্কা দেওয়ায় পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পট কিক থেকে গোল করতে ভুল করেননি অঞ্জন বিস্তা। তাঁর ৮৮ মিনিটের ওই গোলে এক পয়েন্ট নিয়ে ফাইনালে চলে গেছে নেপাল।

ভারত ম্যাচের মতো নেপালের বিপক্ষেও দলের জন্য বড় ধাক্কা হয়ে আসে লাল কার্ড। বিশ্বনাথ ভারতের বিপক্ষে লাল কার্ড খেয়ে দলকে কোণঠাসা করে দেন। নেপালের বিপক্ষে জিতলেই ফাইনাল এমন ম্যাচে লাল কার্ড দেখেন বাংলাদেশের গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো। দারুণ কিছু সেভ করা এই স্টপকিপারকে ৭৯ মিনিটে মাঠ ছাড়তে হয়। একজন কম নিয়ে ’অল আউট’ ‍ফুটবল ছেড়ে রক্ষণাত্মক ছকে নামা দল শেষ পর্যন্ত গোলবার আগলে রাখতে পারেনি।

শুরুতে সুমন দলকে উল্লাসে ভাসালেও মাঠ ছাড়তে হয়েছে মলিন মুখে। ছবি: টুইটার

সর্বশেষ সাফের আসরেও নেপাল বাধা পার করেতে পারেনি বাংলাদেশ। র‌্যাংকিংয়ে এগিয়ে থাকা দলটির বিপক্ষে গত আসরে হেরে গ্রুপ পর্বেই বিদায় নিয়েছিলো বাংলাদেশ। সাফের ফাইনালে যাওয়ার লড়াইয়ে টিকে আছে ভারত-মালদ্বীপ। আজ (বুধবার, ১৩ অক্টোবর) বাংলাদেশ সময় রাত দশটায় ওই দুই দলের মধ্যে জয়ী দল চলে যাবে ফাইনালে। তবে ড্র হলে বিদায় নেবে ভারত।

বিভি/এসএম

মন্তব্য করুন: