• বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ১৩ কার্তিক ১৪২৮

BVNEWS24 || বিভিনিউজ২৪

আয়ারল্যান্ডের কাছে বড় হার টাইগারদের 

প্রকাশিত: ১৬:০০, ১৪ অক্টোবর ২০২১

আপডেট: ১৬:৩১, ১৪ অক্টোবর ২০২১

ফন্ট সাইজ
আয়ারল্যান্ডের কাছে বড় হার টাইগারদের 

ছবি: টুইটার

সংযুক্ত আরব আমিরাতের উইকেটে ফ্লাডলাইট ও শিশির ভেজা ঘাসে শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে খেলেছে মরুর দেশের দুপুর গড়ানো রোদ-গরমে। উদ্দেশ্যে টি-২০ বিশ্বকাপের উইকেট ও কন্ডিশন চেনা। ওই উদ্দেশ্য পূরণ হলেও দুই প্রস্তুতি ম্যাচেই হেরেছে টাইগাররা। ঘা লেগেছে আত্মবিশ্বাসে।

শ্রীলংকার বিপক্ষে জয়ের পথে থাকা ম্যাচে ৪ উইকেটে হারের পর আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) টি-২০ বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ও শেষ টি-২০ ম্যাচে ৩৩ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছে টাইগাররা। আইরিশদের বিপক্ষে ব্যাটে-বলে মাহমুদুল্লাহ-সাকিবহীন দল হতাশা ভর করা পারফরম্যান্স দেখিয়েছে।

টস জিতে ব্যাট করতে নামা আয়ারল্যান্ড ভালো শুরু পায়। পল র্স্টালিং ১৬ বলে ২২ রান যোগ করেন। আন্দ্রে বালব্রেনি’র ব্যাট থেকে ২৫ রান পায় আইরিশরা। এরপর দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন ২৪ বছর বয়সী তরুণ অলরাউন্ডার গ্যারেথ ডিলানি। এই লেগ স্পিনার খেলেন ৫০ বলে তিন চার ও আট ছক্কায় ৮৮ রানের হার না মানা দুর্দান্ত ইনিংস। তাঁকে সংগ নিয়ে টেক্টর ২৩ বলে ২৩ রান করেন। দলকে ৩ উইকেটে তাঁরা এনে দেন ১৭৭ রান।

জবাব দিতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় বাংলাদেশ। বাঁ-হাতি ওপেনার নাঈম শেখ প্রথম ওভারেই ৩ রান করে ফিরে যান। পরের ওভারে সাজঘরে ফেরেন অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া লিটন দাস। তিনি করেন মাত্র ১ রান। বিপদে ভরসা দেওয়ার ও প্রত্যাশিত ফর্মে ফেরার সুযোগ পেয়েও হাতছাড়া করেন মুশফিকুর রহিম। তিনি ৪ বলে ৪ রান করে ফেরেন। দল ১৫ রানে হারায় তিন নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান।

এরপর ব্যাট হাতে হাল ধরেন তিনে নামা সৌম্য সরকার ও পাঁচে নামা আফিফ হোসেন। ওই জুটি স্বপ্ন দেখালেও ১৭ রান করে আফিফ সাজঘরে ফিরলে আশা ভঙ্গ হয়। লড়াই করে সৌম্য এক চার ও দুই ছক্কায় ৩৭ করে রান আউট হন। নুরুল হাসান ২৪ বলে ছয়টি চারের মারে ৩৮ রান করেন। শেখ মাহেদি ৯ ও তাসকিন ১৪ রান করেন। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ ইনিংসের শেষ বলে অলআউট হয় ১৪৪ রানে।

ব্যাটিংয়ের মতো বল হাতেও বিবর্ণ ছিলো বাংলাদেশের বোলাররা। আইপিএল খেলে আসা মুস্তাফিজুর রহমান ৪ ওভারে ৪০ রান দিয়ে ‍উইকেট শূন্য ছিলেন। বাঁ-হাতি শরিফুল ইসলাম ৪ ওভারে ৪১ রান দিয়েও কোনো উইকেট পাননি। বাঁ-হাতি স্পিনার নাসুম আহমেদ ১ উইকেট পেলেও ৪ ওভারে খরচ করেন ৩৩ রান। তবে তাসকিন আহমেদ ভালো বোলিং করেছেন। ৪ ওভারে ২৬ রান দিয়ে ২ উইকেট নেন তিনি। মাহেদি-সৌম্যও রান চেপে দেওয়া বোলিং করেন।

বিভি/এসএম

মন্তব্য করুন: