• NEWS PORTAL

  • শনিবার, ২২ জুন ২০২৪

Inhouse Drama Promotion
Inhouse Drama Promotion

কানের লাল গালিচায় তারকার পোশাকে ফিলিস্তিনের পতাকার চমক 

প্রকাশিত: ১৬:২৪, ২২ মে ২০২৪

ফন্ট সাইজ
কানের লাল গালিচায় তারকার পোশাকে ফিলিস্তিনের পতাকার চমক 

ফ্রান্সের পালে দ্য ফেস্টিভ্যাল ভবনের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে ১৪ মে বসেছে বিশ্ব চলচ্চিত্রের গৌরবময় আসর কান চলচ্চিত্র উৎসবের ৭৭তম আসর। প্রতিদিন বিশ্বের খ্যাতিমান পরিচালক, প্রযোজক ও অভিনয়শিল্পীদের উপস্থিতিতে উজ্জ্বল হচ্ছে কানের লাল গালিচা। তারকাদের আলো ঝলমলে রূপের দ্যুতিতে মাতোয়ারা কান দুনিয়া। এরইমাঝে কানের লাল গালিচার সব স্পটলাইট নিমিষেই নিজের দিকে টেনে নিলেন হলিউড অভিনেত্রী কেট ব্ল্যানচেট। রেড কার্পেটে দাঁড়িয়ে নিজের পোশাকে ফিলিস্তিনের পতাকাকে ধারণ করে চমক লাগালেন তিনি।

অন্যায়ের বিরুদ্ধে বরাবরই সোচ্চার হলিউডের অস্কার জয়ী অভিনেত্রী কেট ব্ল্যানচেট। বর্তমানে তিনি আছেন ৭৭তম কান চলচ্চিত্র উৎসবে। একদিন আগেই উৎসবে দেখানো হয়েছে অভিনেত্রীর নতুন ছবি ‘রিউমারস’।

তবে সেই ছবির জন্য নয়, বিশ্বব্যাপী নতুন করে কেট ব্ল্যানচেট আলোচনায় আসলেন অন্য কারণে! কানের লাল গালিচায় হেঁটেছেন অস্ট্রেলিয়ান এই তারকা অভিনেত্রী। তার এই উপস্থিতিই যেন অন্যরকম এক প্রতিবাদ হয়ে ঝড় তুললো গোটা বিশ্বে। কারণ, তিনি পোশাকের সাথে জড়িয়ে নিয়েছেন ফিলিস্তিনের পতাকা।

কানে তারকারা ফিলিস্তিনের প্রতি সংহতি প্রকাশ করবেন সেটা অনুমেয় ছিল।কিন্তু সেটা যে এমনভাবে হবে তা ছিল সবার ধারণার বাইরে। কারণ কেট ব্ল্যানচেট সরাসরি ফিলিস্তিনের পতাকায় নিজের পোশাক তৈরী করেননি। বরং তার জন্য অন্যরকম এক কৌশল ব্যবহার করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন!

ফিলিস্তিনের পতাকায় চারটি রং, কিন্তু কেট যে গাউনটি পরে লাল গালিচায় দাঁড়ান- তার রং তিনটি। কালো, সাদা, সবুজ!গাউনের সামনের দিকটা পুরোটা কালো, পেছনে সাদার মতো বেবি পিঙ্ক আর ট্রেইলের ভেতরের অংশে সবুজ। কেটের পোশাকে লাল রং অনুপস্থিত ছিল। আর কৌশলটা কেট ব্ল্যানচেট সেখানেই কাজে লাগিয়েছেন!

কানের রেড কার্পেটের যে লাল রঙের উপর তিনি দাঁড়িয়ে ফটোসাংবাদিকদের পোজ দিচ্ছিলেন, সেইটাকেই মুহূর্তে ফিলিস্তিনের পতাকার রং করে দিলেন। উপস্থিত সবাই বিস্মিত ও হতবাক। মূলত ফিলিস্তিনের প্রতি সংহতির বার্তা দিতেই এই কাণ্ডটি ঘটান কেট।

অভিনয়ের বাইরে বরাবরই একজন মানবাধিকার কর্মী কেট ব্ল্যানচেট। শুধু নারী অধিকার নয়, যেকোনো যুদ্ধের বিরুদ্ধে সোচ্চার এই অভিনেত্রী। গত বছরের শেষ দিকে গাজায় ইজরায়েলে সংঘাতের বিরুদ্ধেও তিনি আওয়াজ তুলেন। যুদ্ধ থামাতে অন্যান্য সচেতন হলিউড তারকাদের সাথে তিনিও মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে চিঠি লিখেছিলেন।

 

বিভি/জোহা/টিটি

মন্তব্য করুন: