• বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি ২০২২ | ৭ মাঘ ১৪২৮

BVNEWS24 || বিভিনিউজ২৪

করোনায় গুরুতর অসুস্থতা দ্বিগুণ করে মানবদেহের একটি জিন

প্রকাশিত: ২০:২৩, ১৪ জানুয়ারি ২০২২

ফন্ট সাইজ
করোনায় গুরুতর অসুস্থতা দ্বিগুণ করে মানবদেহের একটি জিন

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে গুরুতর অসুস্থতা দ্বিগুণ হতে পারে মানবদেহে এমন একটি জিন শনাক্তের দাবি করেছেন পোল্যান্ডের বিজ্ঞানীরা। তারা বলছেন, এটি শনাক্ত হওয়ার ফলে যেসব মানুষ করোনায় বেশি ঝুঁকিতে তাদের শনাক্ত করা চিকিৎসকদের জন্য সহায়ক হবে বলে আশা করা হচ্ছে। খবর রয়টার্স-এর। 

মধ্য ও পূর্ব ইউরোপে করোনায় মৃত্যুর হার বেশি হওয়ার অন্যতম কারণ টিকা গ্রহণে অনীহা। তাই যারা সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে আছেন, তাদের শনাক্ত করার মাধ্যমে টিকাগ্রহণে উৎসাহিত করা এবং আক্রান্ত হলে তাদের নিবিড়ভাবে চিকিৎসা দেওয়াও সম্ভব হবে আশা করছেন গবেষকরা।

মেডিকেল ইউনিভার্সিটি অব বিয়ালস্টকের গবেষকরা বলছেন, বয়স, ওজন এবং লিঙ্গের পর চতুর্থ যে গুরুত্বপূর্ণ কারণে একজন মানুষ কোভিডে গুরুতর অসুস্থ হতে পারেন, সেই জিন তারা আবিষ্কার করতে পেরেছেন।

এই গবেষণা প্রকল্পের ইনচার্জ মার্সিন মনিউসকো বলেছেন, পোল্যান্ডের জনগণের মধ্যে ১৪ শতাংশ মানুষের শরীরে এই জিন রয়েছে, যেখানে গোটা ইউরোপে এই হার ৮-৯ শতাংশ। ভারতীয়দের মধ্যে এই হার ২৭ শতাংশ।

পোল্যান্ডের স্বাস্থ্যমন্ত্রী অ্যাডাম নিডজিয়েলস্কি বলেন, প্রায় দেড় বছরের গবেষণার পর করোনায় গুরুতর অসুস্থ হওয়ার এই প্রবণতার জন্য দায়ী জিন আবিষ্কার করা সম্ভব হয়েছে। এর মানে ভবিষ্যতে আমরা সেসব মানুষকে শনাক্ত করতে সক্ষম হবো, যাদের করোনায় গুরুতর অসুস্থ হওয়ার প্রবণতা আছে।

এছাড়া অন্যান্য গবেষণায়ও কোভিডে গুরুতর অসুস্থ হওয়ার ক্ষেত্রে জেনেটিক্যাল কারণ কতোটা গুরুত্বপূর্ণ তা বলা হয়েছে।

এর আগে গত নভেম্বরে ব্রিটিশ বিজ্ঞানীরা দাবি করেন, করোনা আক্রান্ত হলে ফুসফুস অকেজো হওয়ার দ্বিগুণ ঝুঁকির জন্য দায়ী এক ধরনের জিন শনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছেন তারা।

বিভি/এসডি

মন্তব্য করুন: