• NEWS PORTAL

  • শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪

শিক্ষককে মাটিতে ফেলে পেটালেন ছাত্রীর মা-বাবা

প্রকাশিত: ১৯:২৯, ২৩ মার্চ ২০২৩

ফন্ট সাইজ
শিক্ষককে মাটিতে ফেলে পেটালেন ছাত্রীর মা-বাবা

শিক্ষককে মাটিতে ফেলে পেটালেন ছাত্রীর মা-বাবা

সন্তানকে মারধর করার অভিযোগে স্কুলশিক্ষককে মাটিতে ফেলে পিটিয়েছেন দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রীর মা-বাবা। এ ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের। 

এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের তামিলনাড়ুতে। বুধবার (২২ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, নির্যাতনের শিকার আর ভরত তামিলনাড়ুর তুতিকোরিন জেলার একটি সরকারি স্কুলের শিক্ষক। পুলিশ জানিয়েছে, সন্তানকে মারধর করার অভিযোগ নিয়ে এদিন স্কুলে হাজির হন তার মা-বাবা। অনুমতি না নিয়ে ক্লাসে ঢুকেই শিক্ষককে ছাত্রীর মা বলেন, ‘শিশুদের মারধর করা বেআইনি। কেন মেরেছেন আমার মেয়েকে? কে অধিকার দিয়েছে? জুতা দিয়ে মারা উচিত আপনাকে।’

এরপরই ভরতকে ক্লাস থেকে টেনে বের করার চেষ্টা করেন তিনি। পালানোর চেষ্টা করেন শিক্ষক। তাকে পুরো স্কুল ধাওয়া করেন ছাত্রীর বাবা শিবলিঙ্গম। এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

জানা গেছে, শিক্ষক ভরতকে মাটিতে ফেলে বেধড়ক মারধর করেন ওই দম্পতি। তাকে ইট দিয়েও আঘাত করার চেষ্টা করা হয়। এ সময় আতঙ্কে কান্না জুড়ে দিয়েছিল খুদে শিক্ষার্থীরা। অপরদিকে সহকর্মীকে মার খেতে দেখে তার এক সহকর্মী ছুটে আসেন। কিন্তু তাকে হামলা থেকে বাঁচাতে পারেননি। পরে তার চিৎকার শুনতে পেয়ে আশপাশের লোকজন এসে আক্রান্ত শিক্ষককে উদ্ধার করেন।

তুতিকোরিনের পুলিশ সুপার এল বালাজি শরবনন বলেছেন, এ ঘটনায় ওই দম্পতির বিরুদ্ধে হামলা, ভীতি প্রদর্শন, এবং একজন সরকারি কর্মচারীকে দায়িত্ব পালনে বাধা দেওয়ার অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ছাড়াও অভিযুক্তের ভাই মুনুস্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত চলছে।

এদিকে স্কুল কর্তৃপক্ষের দাবি, ওই শিক্ষার্থীকে অন্য বেঞ্চে বসতে বলা হয়েছিল। কিন্তু সে কথা শুনছিল না। সহপাঠীদের সঙ্গে মারামারি করছিল। আসন বদল করার সময় পড়ে গিয়ে সে আঘাত পায়। কোনো শিক্ষক তাকে মারধর করেনি। কিন্তু শিশুটি বাড়ি ফিরে তার দাদার কাছে অভিযোগ করে যে শিক্ষক তাকে মারধর করেছেন।

বিভি/টিটি

মন্তব্য করুন: