• বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারি ২০২২ | ৭ মাঘ ১৪২৮

BVNEWS24 || বিভিনিউজ২৪

পরিচয়হীনদের নিয়ে সমস্যায় ইসি

প্রকাশিত: ২৩:০৯, ২ জানুয়ারি ২০২২

আপডেট: ১৬:৫৯, ৩ জানুয়ারি ২০২২

ফন্ট সাইজ
পরিচয়হীনদের নিয়ে সমস্যায় ইসি

যৌনকর্মীদের সন্তান, হিজড়া এবং এতিমখানায় বড় হওয়া সন্তান, যাদের পিতা-মাতা’র পরিচয় জানা নেই, এমন পরিচয়হীনদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভূক্ত করা ও জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদানের ক্ষেত্রে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এই সমস্যা সমাধানে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি সরকারের কাছে সুপারিশ করবে বলে জানা গেছে।

এই বিষয়ে কথা হলে নির্বাচন কমিশনার বেগম কবিতা খানম বলেন, ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভূক্তি করতে হলে ফরমে পিতা-মাতার নাম, নিজের নাম, জন্ম তারিখ দিতে হয়। পথশিশু বা এতিমখানায় বড় হয়, হিজড়া, যৌনকর্মীদের সন্তান এদের কারো কারো পিতার পরিচয় পাওয়া যায় না। আবার কারো কারো পিতা-মাতা কারোই পরিচয়ই পাওয়া যায় না। সেই ক্ষেত্রে ভোটার তালিকায় এদের নাম অন্তর্ভূক্ত করা একটু কঠিন হয়ে যায়। আবার বর্তমানে যেকোনো কাজ করতে গেলেই জাতীয় পরিচয়পত্র লাগছে। জাতীয় পরিচয়পত্রে পিতা-মাতার নাম লেখার ঘর আছে। কিন্তু পিতা-মাতা না থাকার কারণে এদের ক্ষেত্রে সেটি করা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, সম্প্রতি একটি এতিমখানায় বাচ্চাদের করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র করার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়। কিন্তু পিতা-মাতা না থাকার কারণে সেটি করা যাচ্ছিলো না। ইতিপূর্বে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম দেখতে গিয়েও বিষয়টি লক্ষ্য করেছি। এদের জন্য আইনটি কী হওয়া উচিৎ, ভোটার তালিকায় বা জাতীয় পরিচয়পত্রে তাদের আইডেন্টিটি কীভাবে দেওয়া যায়, সেই জন্য আমরা একটি কর্মশালা’র আয়োজন করেছি। যদিও ইতিমধ্যে সরকার হিজড়াদের একটি স্বীকৃতি দিয়েছে। 

এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, পিতা-মাতা’র জায়গায় যদি আমরা অন্যকারো নাম লিখি, তাহলে তাঁর সম্পত্তি নিয়ে জটিলতার সৃষ্টি হতে পারে। এইগুলোসহ বিভিন্ন বিষয় মাথায় নিয়ে আমরা কর্মশালাটির আয়োজন করতে যাচ্ছি। যেহেতু ভোটার তালিকা ও জাতীয় পরিচয়পত্র আমাদেরকেই দিতে হচ্ছে। সুতরাং এই বিষয়টি কীভাবে আইনানুগভাবে নিষ্পত্তি করা যায় সেটি একটি সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসতে কর্মশালাটি করছে কমিশন। কর্মশালায় যেই প্রস্তাবগুলো আসবে, সেইগুলোকে বিবেচনায় নিয়ে প্রস্তাবনা তৈরি করা হবে। তারপর আইনানুগভাবে নিষ্পত্তি করার জন্য যারা এই বিষয়ে কাজ করে তাদের কাছে পাঠানো হবে। 

বাংলাদেশের প্রথম নারী নির্বাচন কমিশনার বলেন, সমস্যাটা কীভাবে সমাধান করা যায়, তার একটি পথ তৈরি করে নির্বাচন কমিশন সরকারের কাছে তুলে ধরবে। সুপারিশ করা হবে যে, আমরা এই সমস্যাগুলোর সম্মুখীন হচ্ছি। এইগুলোর সমাধান কীভাবে করা যায়।  

সূত্র জানায়, ভোটার তালিকায় পরিচয়হীনদের পিতা-মাতার নাম লিপিবদ্ধকরণে জটিলতা নিরসন শীর্ষক কর্মশালাটি ৬ জানুয়ারি হোটেল সোনারগাঁওয়ে অনুষ্ঠিত হবে। ইসি সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া কর্মশালায় বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ চার নির্বাচন কমিশনার, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সর্বোচ্চ পদধারী ব্যক্তি, বিভিন্ন সংস্থা, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা কর্মশালায় অংশ নেবেন।


 

বিভি/রিসি 

মন্তব্য করুন: