• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

মেয়াদোত্তীর্ণ টিয়ারশেলের খোসাকে কলমদানি বানালো শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত: ১০:৪৮, ২১ এপ্রিল ২০২২

আপডেট: ১০:৫৪, ২১ এপ্রিল ২০২২

ফন্ট সাইজ
মেয়াদোত্তীর্ণ টিয়ারশেলের খোসাকে কলমদানি বানালো শিক্ষার্থীরা

টিয়ারশেলের খোসাকে কলমদানি বানিয়ে এভাবেই টেবিলে সাজিয়ে রেখেছে শিক্ষার্থীরা।

রাজধানীর নিউ মার্কেট এলাকায় গত তিন দিন উত্তপ্ত অবস্থা বিরাজ করেছে। শিক্ষার্থী আর ব্যবসায়ীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ওই এলাকা যুদ্ধক্ষেত্রে পরিণত হয়েছিল। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে রাবার বুলেট ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পুলিশ। কিন্তু নিক্ষিপ্ত টিয়ারশেল নিয়ে পড়ে যায় হই চই।

কেননা কুড়িয়ে পাওয়া টিয়ারশেলের খোসায় দেখা গেছে সেগুলোর মেয়াদ কয়েক বছর আগেই উত্তীর্ণ হয়েছে। ছাত্রদের উপর এ ধরণের বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ ছুড়ে দেয়ায় অনেকেই নিন্দা জানিয়েছেন। বিশেষজ্ঞরাও জানিয়েছেন, এই ধরণের মেয়াদোত্তীর্ণ রাসায়নিক পদার্থ স্বাস্থ্যের জন্যে ক্ষতির কারণ হতে পারে।

সোমবার রাতে প্রথম দফায় টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে ছাত্রদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়ার ঘটনায় ব্যবহৃত টিয়ারগ্যাস ছিলো মেয়াদোত্তীর্ণ। আবার পরদিন মঙ্গলবার দুপুরে ছোঁড়া টিয়ারগ্যাসগুলোও মেয়াদোত্তীর্ণ ছিলো। এমনকি চার বছর আগেই এসব টিয়ারগ্যাসের মেয়াদ শেষ হয়েছে। যা উৎপাদন হয়েছিল ২০১৩ সালে। আর ব্যবহারের শেষ সময় লেখা ছিল ২০১৮।

তবে অনেক নাটকীয়তা ও হামলা-সংঘর্ষের পর মীমাংসা হয়েছে দু’পক্ষের। দোকান খুলেছেন ব্যবসায়ীরা। হলে ফিরেছেন শিক্ষার্থীরা। দাবি-দাওয়া পূরণের আশ্বাস দিয়েছে প্রশাসন।

এই সেই মেয়াদোত্তীর্ণ টিয়ারশেল এর খোসা।

এরই মাঝে সামাজিক মাধ্যমে দেখা গেলো সেই টিয়ারশেলের খোসা। যেগুলো কুড়িয়ে নিয়ে বিভিন্ন শিক্ষার্থী বিভিন্ন কাজে লাগিয়েছেন। সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া কয়েকটি ছবিতে দেখা গেছে, শিক্ষার্থীরা কুড়িয়ে পাওয়া টিয়ারশেলের খোসায় ডিসি (ঢাকা কলেজ) ও তারিখ লিখে সেটাকে কলমদানি বানিয়ে টেবিলে রেখেছেন। শুধু রেখেই দেননি তাতে কলমও সাজিয়ে রেখেছেন।

তিনদিনর ওই সংঘর্ষের ঘটনায় সাংবাদিক, শিক্ষার্থী ও দোকান কর্মচারিসহ শতাধিক আহত হয়েছেন। এ পর্যন্ত দু’জন দোকান কর্মচারি নাহিদ ও মোরসালিন নিহত হয়েছেন। চিকিৎসাধীন আছেন আরও অনেকে।

বিভি/এজেড

মন্তব্য করুন: