• NEWS PORTAL

শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

অপু বিশ্বাসের সিনেমা দেখতে হলে এলেন ৫ জন, অতঃপর...

প্রকাশিত: ১৪:১৮, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ফন্ট সাইজ
অপু বিশ্বাসের সিনেমা দেখতে হলে এলেন ৫ জন, অতঃপর...

একটা সময় অপু বিশ্বাসের সুদিন ছিল ঢালিউডে। তার সিনেমা দেখতে হলে গিজগিজ করতেন দর্শক। তবে এখন আর সেদিন নেই। অপুর সিনেমা দেখতে প্রেক্ষাগৃহে দর্শক-ই খুঁজে পাওয়া যায় না। যাওবা চার-পাঁচজন আসেন ছবি দেখতে তারাও আগ্রহ ধরে রাখতে পারেন না। গোটা ছবি শেষ না হতেই হল থেকে বেরিয়ে যান।

গত ৯ ফেব্রুয়ারি দেশব্যাপী মুক্তি পেয়েছে অপু-জয় অভিনিত নতুন সিনেমা ‘ট্র্যাপ’। খুলনার সংগীতা সিনেমা হলেও প্রদর্শিত হচ্ছে ছবিটি। সেখানেই এমন চিত্র দেখা গেছে। রোববার মর্নিং শোয়ে ছবিটি দেখতে এসেছিলেন মাত্র পাঁচজন দর্শক। তাদেরও পুরো সিনেমা দেখার ধৈর্য হয়নি। ফলস্বরুপ এক ঘণ্টা না হতেই হল ছাড়েন তারা।

মুক্তির দুই দিন পেরিয়ে গেছে। অপু বিশ্বাসের ‘ট্র্যাপ’ সিনেমাটি কেমন চলছে-তা জানতে চাইলে মোহাম্মদ নাইম বলেন, ‘আজ রোববার মর্নিং শোয়ে পাঁচ জন দর্শক এসেছিলেন ছবিটি দেখতে। তাদের মধ্যে দুজন ভিআইপি ও বাকি তিনজন লাক্সারির টিকিট কেনেন। তবে তাদের কেউই পুরো ছবি দেখেননি। ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই নেমে যান।’

কেন পুরো সিনেমাটি দেখার ধৈর্য হলো না দর্শকের- কিছু কারণও খুঁজে বের করেছেন হলের সার্বিক দায়িত্বে থাকা নাইম। তিনি বলেন, ‘‘ছবির পোস্টার দেখেছেন? অপু বিশ্বাস ছাড়া আর পরিচিত কেউ আছে সেখানে? মানুষ তো প্রথমে পোস্টার দেখে আকৃষ্ট হয়। আমরা আগে পোস্টার দেখে হলে চলে আসতাম। 

আর এই ছবির পোস্টার দেখুন- কালো, অন্ধকার, কয়েকটি মাথা দিয়ে রেখেছে। এর আগে ‘শেষ বাজী’ নামের একটি ছবি চালিয়েছিলাম। সেই ছবির পোস্টারও এরকম ছিল। বর্তমানে যে ছবিগুলো হয়, সেগুলোর না ভালো হয় পোস্টার, না থাকে ভালো আর্টিস্ট। একারণে সিনেমা চলে না।

মুক্তির দিন থেকেই দর্শক খরায় ভুগছে ‘ট্র্যাপ’। এমনটা উল্লেখ করে নাইম বলেন, ‘শুক্রবার থেকেই দর্শক পাওয়া যাচ্ছে না। প্রথমদিন (শুক্রবার) মোট ৩৪০০ টাকার টিকিট বিক্রি করেছি। গতকাল শনিবার আয় হয়েছে ২৮০০ টাকা। এরমধ্যে মর্নিং শো একটু ভালো গেছে। ১২ জন দর্শক ছিল। আর আজ তো এক ঘণ্টা দেখেই চলে গেছে। আমিও বন্ধ করে এসে পড়েছি। দর্শক নেই আমি কাকে দেখাব ছবি? এখন দেখা যাক বিকেলে কী হয়।

এ সময় মনের দুঃখ প্রকাশ করে হল ম্যানেজার নাইম বলেন, ‘এরকমই চলছে। আমাদের খোঁজ তো কেউ নেয় না। ছবি তো তারা বানিয়েই খালাস। তাদের দেখতে হয় না। দেখতে হয় দর্শককে। আর বুঝি আমরা। এই সিনেমার যতগুলো পোস্টার লাগিয়েছি ততজন দর্শক পেলেও হতো। পুরো সপ্তাহে ১২ হাজার টাকাও হয়তো উঠবে না ‘ট্র্যাপ’ ছবি চালিয়ে।

‘ট্র্যাপ’ সিনেমায় অপুর সঙ্গে দেখা গেছে জয় চৌধুরীকে। পরিচালনা করেছেন দ্বীন ইসলাম। এতে অপু-জয় ছাড়াও অভিনয় করেছেন মিশা সওদাগর, আমান রেজা, তাহমিনা মৌ, এল আর খান সীমান্ত, হারুন কিসিঞ্জার, হায়দার আলী প্রমুখ।

বিভি/এসকে/এজেড

মন্তব্য করুন: