• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ | ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

হোয়াটসঅ্যাপে বিশাল আপডেট, জানুন নতুন সুবিধাগুলো

প্রকাশিত: ১২:৪৩, ১৩ মে ২০২২

ফন্ট সাইজ
হোয়াটসঅ্যাপে বিশাল আপডেট, জানুন নতুন সুবিধাগুলো

চমকপ্রদ এবং বিশাল একটি আপডেট এসেছে হোয়াটসঅ্যাপে। এই আপডেটে অনেক নতুন ফিচার যুক্ত হয়েছে। আগের চেয়ে উন্নতও হয়েছে অনেক ফিচার। এর মধ্যে অধিকাংশ ফিচার নিয়ে অনেকদিন পরীক্ষা চালানো হয় ও অবশেষে অ্যাপে এসব ফিচার যুক্ত হয়েছে। সকল ব্যবহারকারী এসব ফিচারগুলো ধীরে ধীরে তাদের হোয়াটসঅ্যাপে পেয়ে যাবেন। 

ইমোজি, ফাইল সাইজ লিমিট, বড় গ্রুপ চ্যাট, ইত্যাদি নতুন ফিচার ও আপডেট যুক্ত হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপে। এটিকে এখন পর্যন্ত হোয়াটসঅ্যাপের সবচেয়ে বড় আপডেট বলা চলে। চলুন জেনে নেওয়া হোয়াটসঅ্যাপ এর নতুন ফিচারগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত।

পূর্বে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ চ্যাটে সর্বোচ্চ ২৫৬ জনকে এড করার অপশন ছিলো। এই সংখ্যা বাড়িয়ে এবার ৫১২জনে পরিণত করা হয়েছে। অর্থাৎ বিশাল সংখ্যক মানুষকে নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপে গ্রুপ চ্যাট তৈরী করা যাবে। তবে ৫১২জন একই সাথে মেসেজ পাঠানো শুরু করলে কি একটা পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। সে যা-ই হোক, হোয়াটসঅ্যাপের নতুন এই সুবিধা সকল ব্যবহারকারী অনেক পছন্দ করবেন বলে আশা করা যায়।

ফাইল সাইজ লিমিট: ফাইল শেয়ার করার সাইজ লিমিট বাড়ানো হয়েছে। পূর্বে মাত্র ১০০এমবি সাইজের ফাইল আপলোড করা যেতো, যা বর্তমান সময়ের বিবেচনায় বেশ কম। অবশেষে শেয়ার করা ফাইল সাইজ লিমিট বাড়িয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ। এখন থেকে সর্বোচ্চ ২জিবি সাইজের ফাইল পাঠানো যাবে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে। অর্থাৎ পরিবার বা বন্ধুদের কাছে স্মৃতিময় মুহূর্তগুলোর ভিডিও পাঠাতে আর কোনো ধরনের বাধা থাকছেনা।

তবে বড় সাইজের ফাইল পাঠাতে বেশ সময় লাগতে পারে, যা বিবেচ্য বিষয়। বিশেষ করে ওয়াইফাই ছাড়া বড় সাইজের ফাইল শেয়ার করতে অনেকটা সময় লাগে। মজার ব্যাপার হলো কোনো ফাইল আপলোড ও ডাউনলোড করতে কি পরিমাণ সময় লাগতে পারে তা দেখা যাবে। সুতরাং, বুদ্ধিমানের মত এই ফিচার ব্যবহার করলে তেমন কোনো সমস্যা হওয়ার কথা না।

ইমোজি রিয়েকশন: অন্য সোশ্যাল মিডিয়া ও মেসেজিং অ্যাপগুলোতে ইমোজি রিয়েকশন ফিচার এসেছে অনেক আগেই। এটি আহামরি কোনো ফিচার না হলেও হোয়াটসঅ্যাপ এর ক্ষেত্রে এটি বেশ কাজে আসতে পারে। বিশেষ করে বিশাল গ্রুপ চ্যাটে ইমোজি পাঠানোর মাধ্যমে চ্যাট এর মধ্যে সমস্যা সৃষ্টি না করে বরং ইমোজি রিয়েকশন এর মাধ্যমে চ্যাট বেশ সুন্দরভাবে গুছানো থাকবে।

ব্যক্তিগত কনভারসেশনে ইমোজি পাঠানো বা রিয়েকশন দেওয়া, দুইটিই একইভাবে কাজ করে ও কোনো সমস্যার সৃষ্টি করে না। তবে গ্রুপ চ্যাটে এই বিষয়টি বেশ বিব্রতিকর হতে পারে। কোনো গ্রুপে ৫১২জন মানুষ একসাথে ইমোজি পাঠানো শুরু করলে কি হতে পারে সে সম্পর্কে কমবেশি সবার ধারণা রয়েছে। বিশেষ করে গ্রুপ চ্যাটগুলোকে গুছানো রাখতে ইমোজি রিয়েকশন ফিচারটি বেশ কাজে আসবে।

হোয়াটসঅ্যাপ ইমোজি রিয়েকশন : কোনো মেসেজে ট্যাপ করে ধরে রাখলে যেসব ইমোজি রিয়েকশন হিসেবে ব্যবহার করা যাবে সেগুলো দেখতে পাবন। একটি পপ-আপ উইন্ডোতে ছয়টি ইমোজি রিয়েকশন দেখতে পাবেন – থাম্বস আপ (?), হার্ট (❤️), ক্রাই লাফিং (?), শকড/ওয়াও (?), স্যাড (?) ও হ্যান্ডস টুগেদার/প্রেয়ার (?)। 

হোয়াটসঅ্যাপ জানিয়েছে উল্লেখিত ফিচারগুলো ধীরে ধীরে সকল ব্যবহারকারীর কাছে পৌঁছে যাবে। আপনি যদি উল্লেখিত ফিচার ও আপডেটগুলো না পেয়ে থাকেন, তবে চিন্তার কোনো কারণ  নেই। হোয়াটসঅ্যাপ জানিয়েছে এই সপ্তাহের শেষের দিকে অধিকাংশ ব্যবহারকারী এসব ফিচার পেয়ে যাবেন। এর পরেও ফিচারগুলো না পেলে প্লে স্টোর বা অ্যাপ স্টোর থেকে হোয়াটসঅ্যাপ লেটেস্ট আপডেট ইন্সটল আছে কিনা তা নিশ্চিত করুন।

উল্লেখিত ফিচার রয়েছে, এমন প্ল্যাটফর্ম শুধুমাত্র হোয়াটসঅ্যাপ নয়। হোয়াটসঅ্যাপ এর প্যারেন্ট কোম্পানি, মেটা’র মেসেঞ্জার অ্যাপেও প্রায় একই ধরনের ফিচার রয়েছে। আবার ইন্সটাগ্রামেও একই ধরনের ইমোজি রিয়েকশন ফিচার রয়েছে। তবে এর মধ্যে সবকয়টি অ্যাপই মেটা’র। মেটা’র মালিকানাধীন নয়, এমন একটি শক্তিশালী প্রতিযোগী হলো টেলিগ্রাম। উল্লেখিত ফিচারগুলো বিবেচনা করলে মেটা যে হোয়াটসঅ্যাপকে টেলিগ্রামের বিকল্প হিসেবে তৈরী করতে চায়, সে বিষয়ে ইঙ্গিত পাওয়া যায়। সূত্র : বাংলাটেক

বিভি/এজেড

মন্তব্য করুন: