• NEWS PORTAL

  • বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

অবশেষে স্টেডিয়াম নির্মাণে শ্রমিকের মৃত্যুর তথ্য স্বীকার করলো কাতার

প্রকাশিত: ২২:২৪, ২৯ নভেম্বর ২০২২

আপডেট: ২২:৪৬, ২৯ নভেম্বর ২০২২

ফন্ট সাইজ
অবশেষে স্টেডিয়াম নির্মাণে শ্রমিকের মৃত্যুর তথ্য স্বীকার করলো কাতার

কাতারের বিশ্বকাপ আয়োজনে সরাসরি জড়িত ছিলেন এমন এক কর্মকর্তা জানান, বিশ্বকাপের জন্যে স্টেডিয়ামসহ অবকাঠামো নির্মাণে মৃত শ্রমিকদের সংখ্যা ৪০০ থেকে ৫০০ জন। এর আগে কাতার যে সংখ্যার কথা বলেছিলো তা থেকে অনেক বেশি এই সংখ্যা। 

কাতারের বিশ্বকাপ আয়োজনের দায়িত্ব পালন করা সুপ্রিম কমিটির মহাসচিব হাসান আল-তাওয়াদি ব্রিটিশ সাংবাদিক পিয়ার্স মর্গানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মৃতদের এই সংখ্যার কথা তুলে ধরেন। এর ফলে মধ্যপ্রাচ্যে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ আয়োজনকারী কাতারের বিরুদ্ধে মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলোর সমালোচনা আরও জোরালো ও গতি পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সাক্ষাৎকারে আল-তাওয়াদির কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিলো, বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য সব মিলিয়ে সত্যিকার অর্থে কতজন অভিবাসী শ্রমিকদের মৃত্যু হয়েছিলো বলে আপনি মনে করেন? জবাবে কাতারি কর্মকর্তা বলেন, মৃতদের সংখ্যা ৪০০ থেকে ৫০০ বলে ধারণা করা হয়। একেবারে নির্দিষ্ট সংখ্যা আমার জানা নেই। এটি আলোচনার বিষয়।

অবশ্য কাতার আনুষ্ঠানিকভাবে মৃত অভিবাসী শ্রমিকদের নিয়ে কিছু বলেনি। সুপ্রিম কমিটির এক প্রতিবেদনে ২০১৪ থেকে ২০২১ সালের শেষ পর্যন্ত বিশ্বকাপের স্টেডিয়াম নির্মাণ ও সংস্কার কাজে মৃত শ্রমিকদের সংখ্যা বলা হয়েছিলো মাত্র ৪০ জন। 

এক বিবৃতিতে সুপ্রিম কমিটি বলেছে, আল-তাওয়াদি যে সংখ্যার কথা উল্লেখ করেছেন তা ২০১৪ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত কাতারজুড়ে কর্মস্থল সংশ্লিষ্ট সব মৃতের সংখ্যা। এই সংখ্যায় কাতারের সব খাত ও জাতীয়তা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালে কাতার বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের অনুমতি পাওয়ার পর দেশের কর্মসংস্থান নীতিতে সংস্কার আনে। এর আওতায় কাফালা ব্যবস্থা বাতিল করা হয়। এই সময়ে ন্যূনতম মজুরি ১ হাজার কাতারি রিয়াল (২৭৫ ডলার) নির্ধারণসহ মালিকদের খাবার ও থাকার সুবিধা দেওয়া হয়। কর্মস্থলে মৃত্যু এড়াতে শ্রমকিদের নিরাপত্তা বিধিও হালনাগাদ করা হয়। সূত্র: এপি

বিভি/এমআর

মন্তব্য করুন: