• NEWS PORTAL

  • বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

Inhouse Drama Promotion
Inhouse Drama Promotion

লেপ-কম্বল ও শীতের পোশাকের যত্ন নিবেন যেভাবে

প্রকাশিত: ২২:৪২, ২৮ নভেম্বর ২০২৩

ফন্ট সাইজ
লেপ-কম্বল ও শীতের পোশাকের যত্ন নিবেন যেভাবে

দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে নেমেছে শীত। রাতে বেশ ঠান্ডা অনুভূত হচ্ছে। দেখতে দেখতে চলেই এলো লেপ-কম্বল আর শীতের পোশাক বের করার দিন। তবে এক বছর ধরে তুলে রাখা শীতের এসব কাপড় ও পোশাক ব্যবহারের আগে চাই একটু যত্ন। অনেক দিন ঘরে থাকার ফলে যেকোনো কাপড়েই একধরনের গন্ধ হয়, থাকে রোগজীবাণু, পড়তে পারে দাগও। তুলে রাখা হলেও ময়লা হয়ে যেতে পারে এগুলো। পোকামাকড়ের উপদ্রবও হতে পারে। শীতপোশাকের যত্ন নিয়ে রয়েছে নানা রকমের মতামত।

চলুন জেনে নেই শীত পোশাকের কিছু বিষয়-
কাপড়ের ধরন, রঙের বিভিন্নতা, আর ময়লার ধরণ বলে দেবে কোনোটাতে দরকার পড়বে লন্ড্রি ওয়াশ, আবার কোনটা ড্রাই ওয়াশ করলেই চলবে।

কম্বলসহ শীতের যেকোনো কাপড়ে বেশি ময়লা এবং দাগ পড়লে লন্ড্রি ওয়াশ করা যেতে পারে। তবে লন্ড্রি ওয়াশে কাপড় নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা থাকে। শীতের যেকোনো পোশাকই ড্রাই ওয়াশের উপযোগী। এ সময় বিশেষ সমস্যায় পড়তে হয় লেপ নিয়ে। ফারের লেপ হলে করিয়ে নিতে পারেন ড্রাই ওয়াশ। শিমুল তুলার লেপ রোদে ভালোভাবে শুকিয়ে নিন। তবে লেপের কভার অবশ্যই ধুয়ে নিতে ভুলবেন না।

উলের পোশাক
সোয়েটার, মাফলার বা উলের তৈরি যেকোনো জামাকাপড় পরার আগে ধুয়ে নিলে ভালো। এ ক্ষেত্রে লন্ড্রিতে না দিয়ে হালকা সাবানে উলের পোশাক ধুয়ে নেবেন স্বাভাবিক তাপমাত্রার পানিতে। এ সময় অন্য পোশাক একসঙ্গে ধুবেন না। গরম পানিতে ও কড়া ডিটারজেন্টে উলের পোশাক ভেজাবেন না। সাবধানে অল্প ঘষে অন্তত তিনবার পানি বদলে ধুয়ে নেবেন। বেশি নিংড়ানোর প্রয়োজন নেই, শুকনো পুরোনো তোয়ালেতে মুড়ে শুষে নিন বাড়তি পানি। আর চড়া রোদে এই ধরনের জামাকাপড় শুকাতে দেবেন না, কারণ রং চটে যেতে পারে।

লেপ-কম্বল
লেপ যদি শিমুল তুলার হয়ে থাকে, তা হলে রোদে দিন। এতে লেপের ওপর থাকা ধুলা পরিষ্কার হয়ে যাবে। লেপের যদি কভার থাকে, তা হলে সেটি ধুয়ে দেবেন। এক সপ্তাহ পর পর লেপের কভার বদলে দেবেন। লেপ পরিষ্কার না থাকলে অ্যালার্জি হওয়ার আশঙ্কা প্রবল হয়। একই কথা কম্বলের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। এটিও পরিষ্কার রাখা জরুরি। কম্বল যদি তুলার না হয়, তা হলে ধোয়া যেতে পারে। শ্যাম্পুতে মিনিট দশেক ভিজিয়ে ধুয়ে রোদে শুকিয়ে নিতে পারেন। ঝামেলা এড়াতে লন্ড্রিতেও দিয়ে দিতে পারেন। সেখান থেকেই ঝকঝকে করে পাঠাবে কম্বল।

কোট ও লেদার জ্যাকেট
শাল, চাদর রোদে রাখলে পরে তা বেশ ফুরফুরে আমেজে পরা যায়। কানটুপি, মাফলার, হাত মোজা, পা মোজা এসব টুকিটাকি জিনিস ধুয়ে শুকিয়ে নেবেন। কোট ও লেদার জ্যাকেটের বেলায় তা লন্ড্রিতে দিয়ে আগেভাগেই পরিষ্কার করিয়ে নিন, যাতে হাতের নাগালেই পেয়ে যান শীতের সময়টাতে।

খেয়াল রাখবেন যেসব বিষয়-
ড্রাই ওয়াশ উপযোগী কাপড় ঘরেও পরিষ্কার করা যাবে। সে জন্য শ্যাম্পু দিয়ে ধুতে হবে। আর লন্ড্রি ওয়াশ উপযোগী কাপড় গুঁড়া সাবান মেশানো পানিতে ১০-১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখার পর ধুয়ে ফেলা যায়। তবে কাপড় শুকাতে দু-তিন দিন সময় লাগলে কাপড় নষ্ট হওয়ার পাশাপাশি থাকে রং নষ্ট হওয়ার আশঙ্কাও।

বিভি/টিটি

মন্তব্য করুন: