• NEWS PORTAL

শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

টানা চতুর্থবার বৈশ্বিক ভ্রমণ ও পর্যটনে সেরার স্বীকৃতি পেল মালদ্বীপ

মো. ওমর ফারুক খোন্দকার, মালদ্বীপ 

প্রকাশিত: ২০:১০, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩

আপডেট: ২০:১০, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩

ফন্ট সাইজ
টানা চতুর্থবার বৈশ্বিক ভ্রমণ ও পর্যটনে সেরার স্বীকৃতি পেল মালদ্বীপ

ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল অ্যাওয়ার্ডস (ডব্লিউটিএ)-এর টানা চতুর্থবারের মতো বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় গন্তব্যের মর্যাদাপূর্ণ খেতাব জিতেছে মালদ্বীপ। এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন দুবাই, ইন্দোনেশিয়া, নিউজিল্যান্ড, স্পেন এবং ভিয়েতনাম সহ মোট ১৭টি দেশ। সব দেশকে পেছনে ফেলে টানা চতুর্থবারের মতো মালদ্বীপই শীর্ষস্থানীয় গন্তব্যের পুরস্কারটি অর্জন করেন। 

পৃথিবীর অন্যতম নয়নাভিরাম ও অপরূপ সৌন্দর্যের দেশ মালদ্বীপ। বিধাতা যেন দুই হাত ভরে প্রকৃতির রূপে সাজিয়েছেন দেশটিকে। যা দুনিয়াজোড়া মানুষকে মুগ্ধ করে ও টানে। আর এমন দেশটিকে পর্যটনের ‘অস্কার’ হিসেবে আখ্যায়িত করে পুরস্কার প্রদান করেন, শুক্রবার দুবাইয়ের বুর্জ আল আরব হোটেলে অনুষ্ঠিত হওয়া পুরুষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে। 

মালদ্বীপ এই অনুষ্ঠানে (ডব্লিউটিএ) এর গ্লোবাল ট্যুরিজম রেজিলিয়েন্স অ্যাওয়ার্ড ছাড়াও দেশটির মার্কেটিং অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স কর্পোরেশন (এমএমপিআরসি) বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় পর্যটন বোর্ড হিসাবেও স্বীকৃতি পেয়েছেন।এ নিয়ে টানা দ্বিতীয় বছর এ পুরস্কার পেল কর্পোরেশনটি। 

এছাড়াও, বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় বিমানবন্দর হোটেল এবং রিসোর্ট এর সাতটি পুরস্কার পেয়েছেন, যার মধ্যে রয়েছে দেশটির হুলহুলে বিমানবন্দর হোটেল, বুটিক বিমানবন্দর হোটেল, শাংগ্রি-লা হোটেল জেন মালে, হানিমুন রিসোর্ট জে এ মানাফারু, বিলাসবহুল হানিমুন রিসোর্ট ভাক্কারু মালদ্বীপ, লাক্সারি আইল্যান্ড রিসোর্ট ভোমুলি, প্রাইভেট আইল্যান্ড রিসোর্ট ভেলা, ওয়াটার ভিলা রিসোর্ট পান্না মালদ্বীপ-স্পা এবং বিশ্বের সবচেয়ে রোমান্টিক রিসোর্ট হিসেবে স্বীকৃতি পেল বারোস মালদ্বীপ। 

স্থানীয় গণমাধ্যম সুত্রে, একইদিনে ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল অ্যাওয়ার্ডস (ডব্লিউটিএ) দেশটির প্রাক্তন পর্যটনমন্ত্রী ড. আবদুল্লাহ মৌসুমকে বছরের সেরা ভ্রমণ ব্যক্তিত্ব হিসেবেও মনোনীত করেছেন। দুবাইয়ের বুর্জ আল আরব হোটেলে আয়োজিত ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে ড. মৌসুমকে এই পুরস্কার প্রদান করা হয়। (ডাব্লুটিএ) উল্লেখ করেন, কোভিড-১৯ মহামারী দ্বারা সৃষ্ট চ্যালেঞ্জের মধ্যেও মালদ্বীপের পর্যটন শিল্পকে পরিচালনা করার জন্য ডা. মৌসুম সত্যি প্রশংসনীয়। 

এমএমপিআরসি, এক বিবৃতিতে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে জানান, টানা চতুর্থবারের এই ব্যতিক্রমী জয় দেশটির অতুলনীয় অভিজ্ঞতা প্রদানের প্রতিশ্রুতিকে পুনর্ব্যক্ত করে, এবং আমরা আমাদের পর্যটক শিল্পের অংশীদার ও স্টেকহোল্ডারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই, যাদের অবিচল সমর্থনে এই মাইলফলক অর্জনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। 

প্রসঙ্গে, মালদ্বীপ ২৩-এর ওয়ার্ল্ড ট্র্যাভেল অ্যাওয়ার্ডে ‘ওয়ার্ল্ডস লিডিং ডেস্টিনেশন’ খেতাবটি যা প্রথম কোনো ইভেন্টে মালদ্বীপের ইতিহাসে (ডাব্লুটিএ)-এর ঐতিহাসিক ‘ওয়ার্ল্ডস লিডিং ডেস্টিনেশন বোর্ড’ এর গুরুত্বপূর্ণ খেতাব অর্জন।এর আগে ২০২০, ২০২১, ২০২২-এ গুরুত্বপূর্ণ খেতাব অর্জন করেছিলো। 

"বর্তমানে মালদ্বীপ পর্যটন মৌসুম„ ভ্রমণপিপাসুরা যারা সমুদ্র পছন্দ করেন, নির্জনতায় হারিয়ে যেতে চান, সমুদ্রের অবগাহনে নিজেকে ম্লান করাতে চান, প্রকৃতির সুশোভিত ও অপরূপ সৌন্দর্যের সুরা পান করতে চান, তাদের জন্য মালদ্বীপই হোক আকর্ষণীয় গন্তব্যের প্রিয় ও আদর্শ স্থান।

বিভি/এজেড

মন্তব্য করুন:

সর্বাধিক পঠিত