• NEWS PORTAL

  • রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪

Inhouse Drama Promotion
Inhouse Drama Promotion

লোকসভায় সনজনার বিজয় যেনো এক রূপকথা (ভিডিও)

প্রকাশিত: ১৪:৫০, ৭ জুন ২০২৪

ফন্ট সাইজ

দেখে হয়ত ভাবছেন নির্বাচনে পছন্দের প্রার্থীর জয়ে উল্লাস করছেন কিছু সমর্থক। কিন্তু না আপনি ভুল ভাবছেন। যাকে গানের তালে তালে নাচতে দেখছেন তিনিই প্রার্থী।  রাজস্থানের ভরতপুর আসনটি কংগ্রেসের ঝুলিতে এনে দিয়েছেন মাত্র ২৫ বছর বয়সী নারী সনজনা জাটব। 

এবার ভারতের লোকসভা নির্বাচনে বিজয়ী হওয়া সবচেয়ে কম বয়সীদের মধ্যে অন্যতম এই সনজনা জাটব। তিনি উঠে এসেছেন হিন্দু ধর্মের অবহেলিত বর্ণ হিসেবে বিবেচিত দলিত শ্রেণি থেকে। সনজনা কোনো রাজনৈতিক পরিবার কিংবা কোনো ধনাঢ্য পরিবারের সদস্য নন। তার স্বামী একজন সাধারণ পুলিশ কনস্টেবল। রয়েছে দুই সন্তানও। একদিকে সংসার, অন্যদিকে রাজনীতি—দুটি বিষয়কে সঞ্জনা কীভাবে সামলিয়েছেন তা এখন অনেকের কাছেই বিস্ময়। এত অল্প বয়সে সনজনার এমন সাফল্যকে তাই অনেকেই তুলনা করছেন রূপকথার সঙ্গে। 

কংগ্রেসের রাজনীতিতে সনজনার উত্থান মূলত প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর  'ল্যাড়কি হু, লাড় সাকতি হু' প্রচারণায় অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে। এই প্রচারণার একজন সক্রিয় কর্মী হিসেবে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর সুনজরে ছিলেন তিনি। পাশাপাশি দলিত পরিবারের হলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি ছিল তার। ২০১৯ সালে মহারাজা ব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি এলএলবি সম্পন্ন করেছিলেন। ফলে খুব সহজেই স্থানীয় রাজনীতিতে কংগ্রেসের তরুণ মুখ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হন তিনি।  

লোকসভার মতো দেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচনে দলিত শ্রেণির একজন নারীকে প্রার্থী হিসেবে বেছে নিয়ে উদার রাজনীতির প্রকাশ ঘটিয়েছে কংগ্রেস। দলিত গোষ্ঠীকে সচরাচর নিপীড়িত এবং অনগ্রসর জাতি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ভারতের ২০১১ সালের জনগণনা অনুসারে দলিতদের সংখ্যা ২০ কোটি যা ভারতের জনসংখ্যার ১৬ শতাংশ। দলিত শব্দটির ব্যবহার নিয়েও রয়েছে অনেক বিতর্ক। ভারতের নিপীড়িত লোকদের বোঝাতে দলিত শব্দটি ব্যবহার করাকে অসাংবিধানিক আখ্যা দিয়েছে দেশটির সরকার। এছাড়া কেরালা রাজ্যে নিষিদ্ধ করে দেয়া হয়েছে এই শব্দকে। 

২০২৩ সালে রাজস্থানের রাজ্যসভা নির্বাচনে প্রথমবারের মতো সনজনার ওপর আস্থা রাখে কংগ্রেস পার্টি। কিন্তু সেবার মাত্র ৪০৯ ভোটের ব্যবধানে হেরে যান তিনি। তবে তার প্রতি স্থানীয় মানুষের সহানুভূতি থাকায় লোকসভা নির্বাচনেও ভরতপুর আসন থেকে সঞ্জনাকে আবার প্রার্থী করে কংগ্রেস।  নির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী ও সাবেক লোকসভা সদস্য রামস্বরূপ কলিকে ৫১ হাজার ৯৮৩ ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করেন সনজনা।

২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে রাজস্থানের ২৫টি আসনের একটিও জিততে পারেনি কংগ্রেস। তবে এবারের পরিস্থিতি ভিন্ন। এবার রাজস্থানে ৮টি আসন পেয়েছে কংগ্রেস। আর এর মধ্যে সনজনা জাটবের বিজয়টি দেশজুড়ে আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে উঠেছে।
 

বিভি/এমএফআর

মন্তব্য করুন:

সর্বাধিক পঠিত
Drama Branding Details R2
Drama Branding Details R2