• NEWS PORTAL

  • রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২ | ১৯ আষাঢ় ১৪২৯

কুমিল্লা সিটিতে ৭৩০ মামলায় ২৩ লাখ টাকা জরিমানা আদায়

প্রকাশিত: ২২:১৪, ২৫ মে ২০২২

ফন্ট সাইজ
কুমিল্লা সিটিতে ৭৩০ মামলায় ২৩ লাখ টাকা জরিমানা আদায়

আসন্ন কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন করতে কোনো ছাড় দিতে চায় না নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ইতিমধ্যে ক্ষমতাসীন দলের মেয়র প্রার্থীকে আচরণবিধি ভঙ্গের জন্য সতর্ক করার পাশাপাশি স্থানীয় সংসদ সদস্যকেও চিঠি দিয়েছে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়া এই সিটি করপোরেশন এলাকায় পুলিশি টহল, চেকপোস্ট ও ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক  ৭৩০ মামলা দায়ের করে প্রায় ২৩ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। 

এই বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আহসান হাবিব খান (অব.) বাংলাভিশনকে জানান, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর গত ২৬ এপ্রিল থেকে ২৪ মে পর্যন্ত পুলিশি টহল ও পুলিশের চেকপোস্টের মাধ্যমে ৬৯৬টি মোটরসাইকেল-এর বিপরীতে ২২ লাখ ৩৯ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

এছাড়া ম্যাজিস্ট্রেট কর্তৃক ৩৪টি মামলায় ৪০ হাজার ৮০০ টাকা জরিমানা  আদায় করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এছাড়া ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ বলেন, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) ভোটের ইভিএম ‘কাস্টমাইজেশন’ করার সময় প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীদের কারিগরি প্রতিনিধিদের রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। পাশাপাশি ছয় পৌরসভার (গোপালগঞ্জ, মোকসুদপুর, সিলেটের বিয়ানীবাজার, রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি, মেহেরপুর ও ঝিনাইদহ)  ক্ষেত্রেও এ সুযোগ রাখা হতে পারে।

তিনি আরো জানান, কুমিল্লা সিটি ও ছয় পৌরসভায় প্রতিটি কেন্দ্রে এবং ভোট কক্ষে সিসি ক্যামেরা রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। কুমিল্লা সিটিতে সিটিতে আট শতাধিক ও ছয় পৌরসভায় নয় শতাধিক সিসি ক্যামেরা লাগবে। ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় সংখ্যক সিসি ক্যামেরা সরবরাহে এ সংক্রান্ত টেন্ডারও করা হয়েছে। আউটিসোর্সিংয়ের মাধ্যমে এসব সিসি ক্যামেরা ভাড়া নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের পর প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী চূড়ান্ত হবে। ভোট রয়েছে ১৫ জুন। এর আগে উপযুক্ত সময়ে কাস্টমাইজেশনের জন্য প্রার্থী বা তার প্রতিনিধিত্ব উপস্থিত থাকতে পারবেন।

কাস্টমাইজেশন: 

নির্বাচনে ব্যবহারের জন্য সংশ্লিষ্ট ভোটকেন্দ্রের ভোটারদের বায়োমেট্রিকসহ ভোটার তালিকার তথ্য, প্রিজাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসার ও প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের তথ্য ইসি অনুমোদিত প্রোগ্রামের মাধ্যমে অডিট কার্ড, পোলিং কার্ড এসডি কার্ডে সংরক্ষণ করাকে এক্ষেত্রে ‘কাস্টমাইজেশন’ বলা হচ্ছে।

কুমিল্লায় আবেদন বৃহস্পতিবারের মধ্যে:

কুমিল্লায় আবেদনের শেষ সময় বৃহস্পতিবার। প্রার্থীদের জন্য ইভিএম কাস্টমাইজেশন কার্যক্রম আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে করা হবে। প্রার্থী অথবা তার মনোনীত কারিগরি জ্ঞানসম্পন্ন প্রতিনিধিরা উপস্থিত থাকতে পারবেন।

কুমিল্লা সিটি ভোটের রিটার্নিং কর্মকর্তা শাহেদুন্নবী চৌধুরী জানান, কাস্টমাইজেশন কার্যক্রম আগ্রহী প্রার্থীদের ২৬ মে বিকেল ৪টার মধ্যে রিটার্নিং অফিসারের কাছে প্রতিনিধির নাম, ঠিকানা, মোবাইল নম্বর, জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর উল্লেখ করে আবেদন করতে হবে।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, এসব নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সময় শেষ হচ্ছে  বৃহস্পতিবার। এসব এলাকায় আগামী ১৫ জুন ইভিএমে ভোট হবে।

বিভি/এইচকে

মন্তব্য করুন: