• NEWS PORTAL

  • বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২ | ১৬ আষাঢ় ১৪২৯

জ্বালা…

জসিম মল্লিক

প্রকাশিত: ১০:৪২, ২৩ জুন ২০২২

ফন্ট সাইজ
জ্বালা…

ছবি: জসিম মল্লিক, গিলন্ড, মানিকগঞ্জ

হারুণার রশিদ খান মুন্নু ছিলেন একজন প্রকৃত শিল্পোদ্যোক্তা। দেশের প্রথম সারির দশ জন শিল্পপতির একজন ছিলেন তিনি। মুন্নু শিল্পগ্রুপকে তিনি প্রায় শূন্য থেকে গড়ে তুলেছিলেন। মানুষ হিসাবেও ছিলেন চমৎকার। দ্বয়িত্বশীল, প্যাশোনেট এবং অনেষ্ট। তার প্রতিষ্ঠানে প্রায় একযুগ কাজ করার সুযোগ হয়েছে আমার। তিনি রাজনীতিবিদ হিসাবেও যথেষ্ট সফল হয়েছিলেন। প্রতিহিংসার রাজনীতি কখনও করেননি।

দীর্ঘ সময় সংসদ সদস্য বা কিছুকাল মন্ত্রী থাকাকালীন সময় দেখেছি তিনি কখনও সরকারি সুযোগ সুবিধা নেননি। সবকিছু তিনি দান করে দিতেন। দানবীর হিসেবেও তার খ্যাতি ছিল। সরকারি পর্যায়ের কোনো অনুষ্ঠান বা কোনো মন্ত্রী, এমপি বা সচিব তার এলাকায় এলে আপ্যায়নের জন্য সরকারি তহবিলের টাকা খরচ করতে দিতেন না। তিনি নিজেই খরচ বহন করতেন। জেলার ডিসি, এসপি, ওসি বা ইউ এন ও সাহেবরা সবসময় মুগ্ধ থাকতেন। 

তিনি প্রায়ই একটা কথা বলতেন আমাকে, জসিম লোকমার জ্বালা বড় জ্বালা। এই কথাটার মর্মাথ হচ্ছে তিনি সহজে কারো বাড়িতে খেতে চাইতেন না। কারো বাড়িতে খেলে তিনি একটা অবলিগেশন ফীল করতেন। তাই কোনো না কোনোভাবে তিনি তার প্রতিদান দিতেন। কয়েখগুণ আকাড়ে দিতেন।

তিনি আজ আর নাই কিন্তু তার ওই কথাটা আমার খুব মনে গেঁথে আছে। আমিও সহজে কারো কাছ থেকে কিছু গ্রহণ করতে পারি না। আতিথ্যি গ্রহণ করতে পারি না। কারোটা খেলে ভিতরে একটা জ্বালা অনুভব করি। লোকমার জ্বালা। এক কাপ চা খেতেও আমার দ্বিধা হয়। তাই সবসময় চেষ্টা করি নিজেকে ভারমুক্ত করতে।  তবে ভালবাসার জিনিস মাথা পেতে নেই। তবে সেটা বিরল পৃথিবীতে।

 

বিভি/রিসি

মন্তব্য করুন: