• NEWS PORTAL

  • রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪

Inhouse Drama Promotion
Inhouse Drama Promotion

দিনাজপুরে বস্তা পদ্ধতিতে আদা চাষে সাফল্য

রাফছানজানী শুভ, ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর)

প্রকাশিত: ১০:৩৫, ২০ আগস্ট ২০২৩

আপডেট: ১০:৩৬, ২০ আগস্ট ২০২৩

ফন্ট সাইজ
দিনাজপুরে বস্তা পদ্ধতিতে আদা চাষে সাফল্য

ছবি: বস্তা পদ্ধতিতে আদা চাষ

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে কুলানন্দপুর সিআইজি কৃষক দলের সদস্যরা বস্তা পদ্ধতিতে আদা চাষ করে এলাকায় ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। এছাড়া পরিত্যক্ত জমিসহ বসতবাড়ির উঠানে আদা চাষে কৃষকদের পরামর্শ দিচ্ছেন স্থানীয় কৃষি বিভাগ। 

উপজেলা কৃষি অফিসের কারিগরি সহায়তায় ও দিক নির্দেশনায় কুলানন্দপুর সিআইজি কৃষক দলের সদ্যরা খরিপ-১ মৌসুমে মার্চ-এপ্রিল মাসে ১হাজার ৬শ বস্তায় আদা চাষ করেছেন। চাষিরা বলেছেন, বর্তমান আদার বাজারে দাম বেশি হওয়ার কারণে সিআইজি কৃষক দলের ৩০ জন সদস্য নিজেদের পরিবারের চাহিদা মেটাতে এবং আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হতে আদা চাষে আগ্রহী হন।

তারা আরও বলেন, তুলনামুলকভাবে কম পরিশ্রমে অধিক লাভ হওয়ায় আদা চাষে ঝুঁকছেন এ উপজেলার কৃষকেরা। কুলানন্দপুর সিআইজি কৃষক দলের মো. রুবেল সরকার জানান, কৃষি অফিসের পরামর্শে আমরা খরিপ-১ মৌসুমে বস্তা পদ্ধতিতে আদা চাষ করি।

বর্তমানে পরিপূর্ণভাবে বেড়েছে আদার গাছ। এই পদ্ধতিতে আমরা বস্তা প্রতি ২-৩টি আদা বীজ হিসেবে ব্যবহার করি। তিনি আরো বলেন, এক শতাংশ জমির জন্য ৪-৫ কেজি আদার বীজ প্রয়োজন হয়। আর একটি গাছ থেকে আড়াই কেজি বা তার চেয়ে বেশি আদা পাওয়া যায়।

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. ফারুক হোসেন জানান, আদা চাষে তেমন পরিশ্রম করতে হয় না। বেলে দোঁ-আঁশ মাটিতে আদা চাষের জন্য উপযোগী। জমি প্রস্তুত করার সময় মাটিতে সার দিতে হয়। আর কোন সার দিতে হয় না। বর্ষা মৌসুমে ছত্রাক আক্রমণ করার সম্ভাবনা থাকে তাই এ সময়ে ছত্রাক নাশক স্প্রে করতে হয়। আর তেমন কোন পরিশ্রম নেই।

উপজেলা কৃষি অফিসার মো. রফিকুজ্জামান জানান, কুলানন্দপুর সিআইজি কৃষক দলের সদস্যরা স্ব-উদ্যোগে ১ হাজার ৬শ বস্তায় আদা চাষ করেছেন। আমরা কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে কারিগরি পরামর্শ দিয়ে আসছি। এছাড়াও পরিত্যক্ত জমি ও বসত বাড়ির উঠানে আরও ৫ হেক্টর জমিতে আদার চাষ করেছে।


 

বিভি/এমআর

মন্তব্য করুন:

Drama Branding Details R2
Drama Branding Details R2