• বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২ | ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

আফগানিস্তানে শক্তিশালী ভূমিকম্পে ২৬ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত: ০৯:১২, ১৮ জানুয়ারি ২০২২

ফন্ট সাইজ
আফগানিস্তানে শক্তিশালী ভূমিকম্পে ২৬ জনের মৃত্যু

ছবি: এনডিটিভি

আফগানিস্তানের পশ্চিম প্রান্তে আঘাত হেনেছে ৫.৩ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্প। সোমবার (১৭ জানুয়ারি) পশ্চিম আফগানিস্তানের বাদঘিস প্রদেশে এই ভূমিকম্পে অন্তত ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বাদঘিস প্রদেশের মুখপাত্র বাজ মোহাম্মদ সারওয়ারি বলেন, কাদিস জেলায় বাড়ির ছাদ ধসে তাদের মৃত্যু হয়েছে।

তিনি জানান, নিহতদের মধ্যে পাঁচ জন নারী ও চার শিশু রয়েছে। এছাড়াও আহত হয়েছেন চার জন। ওই প্রদেশের মুক্বর জেলাতেও ভূমিকম্পে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তবে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানা যায়নি।

আফগানিস্তানে প্রায়ই ভূমিকম্প আঘাত হানে। বিশেষ করে হিন্দুকুশ পর্বতমালা অঞ্চলে ভূমিকম্পের প্রবণতা বেশি। এই অঞ্চলটি ইউরেশীয় ও ভারতীয় টেকটোনিক প্লেটের কাছে অবস্থিত।

২০১৫ সালে প্রবল ভূমিকম্পে আফগানিস্তানে ২৮০ জনের মৃত্যু হয়েছিল। রিখটার স্কেলে ৭.৫ মাত্রার ওই ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিলো পার্বত্য এলাকায়। সেই ভূমিকম্পের প্রভাব পুরো দক্ষিণ এশিয়ায় দেখা দিয়েছিলো। আফগানিস্তানের প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানেও অনেকের প্রাণহানি হয়েছিলো।

আফগানিস্তানে ফৈজাবাদে শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) রাতেও ভূমিকম্প হয়েছিলো। যদিও ওই ভূমিকম্পে ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। ওই দিন রিখটার স্কেলে ৫.৩ মাত্রার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিলো আফগানিস্তানের ফৈজাবাদ। শুক্রবারের ভূমিকম্পের উৎসস্থল ছিলো ফৈজাবাদ থেকে ১১৭ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে।

শুক্রবার ইন্দোনেশিয়ার প্রধান দ্বীপ জাভাতেও জোরাল কম্পন অনুভূত হয়েছিল। কম্পন অনুভূত হয়েছিল রাজধানী জাকার্তাতেও। তবে ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। ওই ভূমিকম্পে সুনামির কোনো আশঙ্কা নেই বলেও সরকারি সূত্রে জানানো হয়েছিল।

মঙ্গলবার ভোরে ভারতের অরুণাচল প্রদেশেও ভূমিকম্প হয়েছে। রিখটার স্কেলে এর মাত্রা ছিল ৪.৯।

বিভি/এসডি

মন্তব্য করুন: