• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১ | ১৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৮

BVNEWS24 || বিভিনিউজ২৪

খাগড়াছড়িতে বিভিন্ন বিহারে কঠিন চীবর দান উৎসব

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৬:৪৩, ২২ অক্টোবর ২০২১

ফন্ট সাইজ
খাগড়াছড়িতে বিভিন্ন বিহারে কঠিন চীবর দান উৎসব

ধর্মীয় ভাবগম্ভীর পরিবেশে নানা আনুষ্ঠানিকতায় খাগড়াছড়ির ঐতিহ্যবাহী য়ংড বৌদ্ধ বিহার, কল্যানপুর মৈত্রী বৌদ্ধ বিহার, ধর্মপুর আর্য্য বন বিহার ও শান্তিপুর অরণ্য কুটির বৌদ্ধ বিহারে দানোত্তম কঠিন চীবর দান উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত দানোত্তম কঠিন উপলক্ষে দূর দূরান্ত থেকে শতশত পূণ্যার্থী বিহারগুলোতে সমাগত হন। কঠিন চীবর দান উপলক্ষে বিহারে বুদ্ধ পূজা, পঞ্চশীল গ্রহণ, সংঘদান, অষ্ট পরিস্কার দান, পানীয় দান, কল্পতরু দানসহ সকল দানীয় বস্তু দান করেন। এসময় ধর্মীয় গুরুরা পূণার্থীর উদ্যেশ্যে ধর্ম দেশনা দেন। এসময় জগতের সকল প্রাণীর সুখ শান্তি ও মঙ্গল কামনা করা হয়।

দায়ক-দায়িকারা এসময় যে যার সাধ্যমত প্রদীপ প্রজ্জ্বলন, ফুল-ফল, ছোয়াইং (খাবার) প্রদান করে বৌদ্ধসহ ভান্তিদের দান করেছেন। সন্ধ্যায় ভগবান বৌদ্ধের উদ্দেশ্যে আকাশ প্রদীপ (ফানুস বাতি) উড়িয়ে দেওয়া হবে।

আজ থেকে আড়াই হাজার বছর আগে মহামতি গৌতম বুদ্ধের জীবদ্দশায় তাঁর প্রধান সেবিকা মহা পূণ্যবতী বিশাখা ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তুলা থেকে সুতা তৈরি করে সুতাগুলো রং করে বয়ন করে সেলাই শেষে চীবর নামে বিশেষ পরিধেয় বস্ত্র দান কার্য সম্পাদন করেন। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মহাযজ্ঞ সম্পাদন করার কারণে বৌদ্ধরা এই ধর্মীয় উৎসবকে কঠিন চীবর দান বলে। 

তিন মাসের বর্ষাব্রত শেষে প্রবারণা তিথিতে বৌদ্ধ ভিক্ষুরা বিহার থেকে বের হন। পরের দিন থেকে বিহারে বিহারে চলে মাসব্যাপী কঠিন চীবরদানোৎসব।

বিভি/এইচএমপি/এসডি

মন্তব্য করুন: