• NEWS PORTAL

  • শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

Inhouse Drama Promotion
Inhouse Drama Promotion

রোজাবস্থায় বিচারকরা উদার থাকেন, জানা গেলো নতুন গবেষণায়

প্রকাশিত: ১৭:১৪, ১৯ মার্চ ২০২৩

আপডেট: ১৭:১৫, ১৯ মার্চ ২০২৩

ফন্ট সাইজ
রোজাবস্থায় বিচারকরা উদার থাকেন, জানা গেলো নতুন গবেষণায়

প্রতীকী ছবি

যে বিচারকরা রোজা রাখেন তারা রায় দেওয়ার সময় একটু বেশি উদার থাকেন। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এ চিত্র উঠে এসেছে।  যদিও আগের এক সমীক্ষায় জানা গিয়েছিলো, ক্ষুধা থাকা অবস্থায় বিচারকরা একটু কঠোর রায় দেন। ২০১১ সালের ওই গবেষণাটি ‘দ্য হাংগ্রি জাজ এফেক্ট' নামে পরিচিতি পেয়েছিলো।

নতুন গবেষণার প্রধান লেখক রাশিয়ার নিউ ইকোনমিক স্কুলের সুলতান মেহমুদ এবং আরো দুইজন অর্থনীতির গবেষক ভারত ও পাকিস্তানের গত ৫০ বছরের রায় পর্যালোচনা করেছেন। তারা প্রায় পাঁচ লাখ মামলার তথ্য ও প্রায় ১০ হাজার বিচারকের কাজ পর্যালোচনা করেন। গবেষণাটি ‘নেচার হিউম্যান বিহেভিয়ারে’ প্রকাশিত হয়েছে।

মেহমুদ বলেন, তারা ‘দ্য হাংগ্রি জাজ এফেক্ট’ গবেষণার ফলাফলের উল্টোটা দেখে ‘অবাক’ হয়েছেন। কারণ গবেষণায় দেখা গেছে, রোজার সময় মুসলিম বিচারকদের কাছ থেকে অপরাধীদের ছাড়া পাওয়ার সংখ্যা অনেক বেড়ে যায়। কিন্তু অমুসলিম বিচারকদের ক্ষেত্রে এমনটা হয়নি বলে গবেষণায় পাওয়া গেছে।

গবেষকরা দেখতে পান, মুসলিম বিচারকরা বছরের অন্য সময়ের তুলনায় রোজার মাসে গড়ে প্রায় ৪০ শতাংশ বেশি মুক্তির রায় দিয়েছেন। এ ছাড়া বিচারকরা যতো বেশি সময় খাবার ও পানি ছাড়া থেকেছেন ততো বেশি উদার রায় দিয়েছেন বলেও জানান তিনি। প্রতি এক ঘণ্টা বেশি সময় রোজা রাখায় মুক্তি দেওয়ার সম্ভাবনা ১০ শতাংশ বেড়ে গিয়েছিল বলে গবেষণায় জানা গেছে।

গবেষণার আরেক লেখক ফ্রান্সের এক্স মার্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতিবিদ আভনের সেরর মনে করেন, ইসলাম ধর্মে ক্ষমা করার যে বিষয়টি আছে, সেটি হয়তো রোজার মাসে বিচারকদের মনে রায় দেওয়ার সময় প্রভাব ফেলে থাকতে পারে। সূত্র: ডয়চে ভেলে 

বিভি/এমআর

মন্তব্য করুন:

Drama Branding Details R2
Drama Branding Details R2