• NEWS PORTAL

  • বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে খেলা সেই দল আজ বিশ্বকাপের ম্যাচ খেলবে

প্রকাশিত: ১৯:২৮, ২০ নভেম্বর ২০২২

আপডেট: ১৯:৩৮, ২০ নভেম্বর ২০২২

ফন্ট সাইজ
বাংলাদেশের বিরুদ্ধে খেলা সেই দল আজ বিশ্বকাপের ম্যাচ খেলবে

বাংলাদেশ ও কাতারের মধ্যেকার ম্যাচের একটি দৃশ্য

বিশ্ব আসরের নাম ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ যার কেতাবি নাম ফুটবল ওয়ার্ল্ড কাপ। প্রথমবারের মতো এই বিশ্ব আসর বসেছে কোনো মরুর দেশে। মধ্যপ্রাচ্যের ইসলামি সংস্কৃতির সঙ্গে ক্রীড়া জগতের একটি মেলবন্ধন তৈরি হবে এই টুর্নামেন্টের মধ্যে দিয়ে এমনটাই প্রত্যাশা আয়োজকদের।

২০ নভেম্বর বিশাল আয়োজনের মধ্য দিয়ে মাঠে গড়াচ্ছে এবারের আসর। মরুর বুকে স্বাগতিক কাতারের বিরুদ্ধে উদ্বোধনী ম্যাচে মাঠে নামবে লাতিন আমেরিকার শক্তিশালী দল ইকুয়েডর। বাংলাদেশ সময় রাত ১০টায় আল খোর রাজ্যের আল বায়াত স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে ইকুয়েডর ও কাতার।

এই ম্যাচের একটি দল কাতার। যারা বাংলাদেশের বিরুদ্ধে বেশকটি ম্যাচ খেলেছে। এ যাবত ৪টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ-কাতার। দুটি ম্যাচ হয়েছে বাংলাদেশের মাটিতে আর বাকি দুটি কাতারে।

এএফসি এসিয়ান কাপের দুটি ম্যাচে এবং বিশ্বকাপ বাছাইয়ের এএফসি অঞ্চলের দুটি ম্যাচে। চারটি ম্যাচেই জয় পেয়েছে অবশ্য কাতার। ব্যবধানগুলোও ছিল বড় বড়। ৫-০, ২-০, ৩-০ ও ৪-১ গোলে হেরেছে লাল-সবুজের প্রতিনিধিরা। 

আরও পড়ুন: 

 

কাতারের ফিফা র‌্যাঙ্কিং ৫০। অন্যদিকে ইকুয়েডর ফিফার ক্রমতালিকায় ৪৪ নম্বরে। ফলে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে ৫০-এর সঙ্গে লড়াই ৪৪-এর। প্রথম ম্যাচের বল গড়ানোর আগে থেকেই দারুণ আলোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে কাতারকে নিয়ে। সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র জল্পনা ইকুয়েডর ম্যাচ ছেড়ে দেবে কাতারকে। কিন্তু মাঠের লড়াইয়ে কেউ কাউকে ছাড় দেয় না।

বাংলাদেশের সাবেক কোচ জেমি ডে বলছেন, ‘কাতারের ফুটবলাররা খুবই শক্তিশালী। সেই সঙ্গে অ্যাথলেটিক। আমাদের বিরুদ্ধে ওরা ৪-৩-৩ পদ্ধতিতে নেমেছিল। খুবই শক্তিশালী দল। যে কোনও দলকে ওরা বেগ দেওয়ার ক্ষমতা ধরে।’

বিশ্বকাপের আয়োজক দেশের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ প্রথম সাক্ষাতে ২-০ গোলে হেরে গিয়েছিল। দ্বিতীয় সাক্ষাতে কাতার ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছিল বাংলাদেশকে। জেমি ডে বলেন, ‘বিশ্বকাপের প্রস্তুতির জন্য বেশ কয়েকদিন ধরেই নিজেদের তৈরি করেছিল কাতার। বিদেশ থেকে কোচ আনার পাশাপাশি দেশের ফুটবলারদের উন্নতি ঘটিয়েছে। ফুটবল পরিকাঠামো পুরোদস্তুর বদলে ফেলেছে। কাতারের ফুটবলাররা এখন আন্তর্জাতিক মানের ফুটবল খেলছে।’

বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে নামার আগে এএফসি এশিয়ান কাপ জিতেছে কাতার। এএফসি এশিয়ান কাপ চ্যাম্পিয়ন কাতার। আর এই জয় দেখিয়ে দিয়েছে ঠিক পথেই এগিয়েছে কাতার। বিশ্বকাপে শক্তিশালী দলগুলোর মোকাবিলা করতে কাতার যে তৈরি, সেই ব্যাপারে আমার মধ্যে কোনও সন্দেহই নেই।

আরও পড়ুন: 

বিভি/এজেড

মন্তব্য করুন: