• NEWS PORTAL

  • বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২ | ১৬ আষাঢ় ১৪২৯

ডাস্টবিন হারিয়ে গেছে শহর থেকে

আব্দুন নূর তুষার

প্রকাশিত: ১৪:৪৫, ২১ এপ্রিল ২০২২

ফন্ট সাইজ
ডাস্টবিন হারিয়ে গেছে শহর থেকে

আপনাদের মনে আছে ঢাকা শহরে ঘটা করে ডাস্টবিন বসিয়েছিলেন দুই মেয়র। আমি এই ডাস্টবিনের বিরোধী ছিলাম। আনিস ভাই(সাবেক মেয়র আনিসুল হক) তাতে কান দেন নাই। সাইদ খোকন সাহেব ডাস্টবিনে নিজের নাম লিখে দিয়েছিলেন। আনিস ভাইয়ের যুক্তি ছিলো এসব ভিজিবিলিটির জন্য করতে হয়।

যাই হোক; ডাস্টবিনগুলি ছয় মাসের মধ‍্যে উধাও হয়ে গেলো। একবছর পর যে কয়টা ডাস্টবিন টিকলো তার পেছনে কারণ খুঁজতে গিয়ে দেখা গেলো ডাস্টবিনের খুব কাছে চটপটির দোকান বা চা সিগারেটের দোকান থাকলে দোকানদার ডাস্টবিনের মালিকানা নেয়। তার কারনে ডাস্টবিনটা চুরি হয় না। তারা ডাস্টবিন শিকল দিয়ে ; আটকে রাখে। দোকানের সামনের অংশ পরিস্কার থাকে। এর পর ফুটপাথ দখলমুক্ত করার সময় ধীরে ধীরে সেগুলো নাই হয়ে গেলো।

এর উপরে গবেষণাও হয়েছে। আর্টিকল পাবলিশড হয়েছে। ডাস্টবিনকে ইন্টারনেটে কানেক্ট করার কথা হয়েছে। সোলার পাওয়ার্ড হাইড্রলিক ডাস্টবিন বসানোর ডাস্টবিন উন্নয়ন প্রকল্প নিয়ে কথাও হয়েছে।
শেষ পর্যন্ত গরীবের কথাই ফলেছে। গত সাত বছরে ডাস্টবিন হারিয়ে গেছে। 

এই দেশে ভালো কাজ করলে ও ভালো কথা বললেই হয় না। ডাস্টবিন না থাকায় নগরবাসীর কিছুই গায়ে লাগে নাই। কারণ সে এসব ছোট ডাস্টবিন চুরিকে নিয়ে ভাবে না। ময়লা নিয়েও ভাবে না।
নাকে তার দুর্গন্ধ সয়ে গেছে। মনে তার চুরি সহ্য করার ক্ষমতাও বেড়েছে।
ঢাকার ময়লা আগের মতোই রাস্তায় আর ফুটপাথে ছিটিয়ে থাকে।
আর খোলা; ঢাকনাহীন ময়লার ট্রাক ময়লা ছড়িয়ে দিতে দিতে চলে।
সেটা চালায় সুইপার। ড্রাইভার চালায় অন্য গাড়ী।

 ২০১৬ সালে বসানো হয়েছিলো ডাস্টবিনগুলো

আব্দুন নূর তুষার : চিকিৎসক ও মিডিয়া ব্যক্তিত্ব

মন্তব্য করুন: